1. abubakarpressjp@gmail.com : Md Abu bakar : Md Abubakar bakar
  2. sharuarpress@gmail.com : admin520 : Md Gulam sharuar
  3. : alamin328 :
  4. jewela471@gmail.com : Jewel Ahmed : Jewel Ahmed
  5. ajkershodesh@gmail.com : Mdg sharuar : Mdg sharuar
শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ০৭:৩৬ অপরাহ্ন
হেড লাইন
জগন্নাথপুরে ঈদুল আজহা উপলক্ষে ফ্রেন্ডস্ ক্লাবের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ বিশ্বনাথ মডেল প্রেসক্লাবের সাথে উপজেলা চেয়ারম্যান সোহেল চৌধুরীর মতবিনিময় সুনামগঞ্জে বিশ্ব শিশুশ্রম প্রতিরোধ দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত রানীগঞ্জ ইউনিয়ন ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন নর্থ-ওয়েষ্ট ইউকে’র অর্থায়নে নগদ অর্থ বিতরণ জগন্নাথপুরে ২০টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবার ঘর পেল কোরবানী ঈদকে সামনে রেখে নবীগঞ্জে জমে উঠেছে পশুর হাট মৌলভীবাজারে প্রকাশ্যে গুলি করা রিপন কারাগারে বিরহী বাউল শিল্পী সুলতানা বেগম পবিত্র ঈদুল আজহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন কমলগঞ্জে বঙ্গবন্ধু বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল সমাপনী অনুষ্ঠিত সুনামগঞ্জে যুব উন্নয়ন ও ওয়াল্ড ভিশনের যৌথ সভা

ট্রাক চাপায় হাত বিছিন্ন সুমির অবস্থা সঙ্কটাপন্ন

  • Update Time : সোমবার, ২৩ এপ্রিল, ২০১৮
  • ১১৮৫ শেয়ার হয়েছে

আজকের স্বদেশ ডেস্ক::

বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ট্রাক চাপায় হাত বিচ্ছিন্ন হওয়া শিশু সুমির শারীরিক অবস্থা আগের মতই আছে। ক্ষতস্থান দিয়ে এখনো রক্তক্ষরণ হচ্ছে। হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে কাতরাচ্ছে সুমি।

রোববার দুপুর দেড়টায় জেলার শেরপুর উপজেলার শেরুয়া এলাকায় মায়ের কোল থেকে ছিটকে মহাসড়কে পড়লে একটি ট্রাক তার হাতের উপর দিয়ে চলে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই সুমির বাম হাত বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

আজ সোমবার বেলা ১১টায় হাসপাতালে গিয়ে দেখা যায় সুমির ক্ষতস্থান দিয়ে এখনো রক্ত ঝরছে। যদিও ডাক্তাররা বলেছেন, ৭২ ঘন্টা পার না হওয়া পর্যন্ত কিছু বলা যাবে না। কারণ হিসেবে তারা বলেছেন, এরকম রোগির ক্ষেত্রে ৭২ ঘন্টার মধ্যে ইনফেকশন হতে পারে। যদি ওই সময় পর্যন্ত কোনো সমস্যা দেখা না দেয় তাহলে অন্যকোনো সমস্যা হওয়ার কথা নয়।

শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. নির্মলেন্দু চৌধুরী জানান, শিশুটির অবস্থা আশঙ্কামুক্ত নয়। মাথার আঘাত গুরুতর। একটি হাত বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে, আরেক হাতের আঙ্গুল ভেঙে গেছে। এখানে ভর্তি করার সময় শিশুটির জ্ঞান ছিলো না। এখন তার জ্ঞান ফিরেছে। ক্ষত স্থানগুলো ড্রেসিং করে দেওয়া হচ্ছে। তবে ২৪ ঘণ্টা পার না হলে কিছুই বলা যাবে না। এ সময় অতিবাহিত হলে শিশুটির অস্ত্রোপচার করা হবে। তার চিকিৎসার দায়িত্ব নিয়েছে শজিমেক হাসপাতাল।

এদিকে সুমির পরিবার সুমিকে নিয়ে চরম দুশ্চিন্তায় আছে। সুমির বাবা দুলাল খাঁ নিজের বাড়ির সাথে একটি ছোট্র দোকানী। সেখানে আয় সামান্য। আগে ভ্যান গাড়ি চালাতে পারলেও এখন দূর্বল। মা মরিয়ম বেগম অন্যের বাসায় ঝি এর কাজ করেন। তিন সন্তানের মধ্যে সুমি সবার ছোট। বাড়ি শেরপুরের শাহবন্দেগী ইউনিয়নের ফুলতলা দক্ষিণপাড়া গ্রামে।

স্থানীয় ব্র্যক স্কুলের প্রথম শ্রেণিতে পড়ে সুমি। দুপুরে সে মা মরিয়ম বেগমের সঙ্গে বাজার থেকে বাড়ি ফিরছিল। শেরুয়া এলাকায় রাস্তা পার হতে গিয়েই হোচট খায় রাস্তায় পড়ে থাকা পাথরের সঙ্গে। নিজেকে সামলাতে পারেনি। মা মরিয়ম বেগমও ধরে রাখতে পারেনি মেয়ের হাত। মা’য়ের হাত থেকে ছিটকে পড়ে যায় রাস্তায়। সে ট্রাকে তার হাত বিছিন্ন হয়ে যায় সেই ট্রাক দ্রুত সটকে পড়ে। মেয়ের এমন অবস্থা দেখে মা মরিয়ম বেগম শোকে পাথর হয়ে যান।

এ ঘটনার পর পুলিশ ওই ট্রাক আটক করেছে। তবে চালক পলাতক রয়েছেন। এ ঘটনায় শেরপুর থানায় মামলা হয়েছে।

এদিকে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দূর্ঘটনার পর চালক শিশুকে হাসপাতালে ভর্তি করে ওষুধ কিনে দেন। এরপর তিনি চলে গেছেন। সে কারণে পুলিশও তাকে তখন ধরেনি।

 

 

আজকের স্বদেশ/জুয়েল

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2024
Design and developed By: Syl Service BD