Logo

August 4, 2021, 4:47 pm

সংবাদ শিরোনাম :

কানাইঘাটে চলন্ত সিএনজিতে ধর্ষনের চেষ্টা ২ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের

কানাইঘাট প্রতিনিধিঃ

গত রবিবার সিলেটের কানাইঘাটে ধর্ষণের হাত থেকে বাঁচতে গিয়ে চলন্ত সিএনজি (অট্রোরিক্সা) থেকে এক যুবতী লাফ দিয়ে রক্তাক্ত আহতের ঘটনায় কানাইঘাট থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। ধর্ষনের চেষ্টার স্বীকার মেয়েটির ভাই গোয়ালজুর গ্রামের ইজ্জত উল্লার পুত্র ইলিয়াছ আহমদ বাদী হয়ে গতকাল সোমবার থানায় অপহরণ ও ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ এনে এ মামলা দায়ের করেন। থানার মামলা নং-২১, তাং-১৯/০৭/২১ইং।

 

 

 

 

মামলায় উপজেলার ঝিঙ্গাবাড়ী ইউপির বাখাইরপাড় গ্রামের রিয়াজ উদ্দিনের পুত্র সিএনজি (অট্রোরিক্সা) চালক দুদু মিয়া ও মৃত আব্দুর রহিমের পুত্র আবুল বশরকে আসামী করা হয়েছে। গত রবিবার জৈন্তাপুর উপজেলার হরিপুর বাজার থেকে কানাইঘাট থানা ও জৈন্তাপুর মডেল থানা পুলিশের উপস্থিতিতে সিলেট র‌্যাব-৯ এর কর্মকর্তারা দুদু মিয়া ও আবুল বশরকে গ্রেফতারের পর তাদের সদর দপ্তরে নিয়া যাওয়ার পর গতকাল সন্ধ্যায় ঐ দুই আসামীকে কানাইঘাট থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

 

 

 

 

 

উল্লেখ্য গত রবিবার বিকাল ৪টার দিকে উপজেলার ঝিঙ্গাবাড়ী ইউপির গোয়ালজুর গ্রামের ইজ্জত উল্লাহ’র মেয়ে গাছবাড়ী বাজার থেকে  দুদু ও বশরের সিএনজি যোগে বাড়ী ফিরছিল। এ সময় ঐ যুবতীকে তার গন্তব্য স্থানে তারা না নামিয়ে তারা দ্রæত হরিপুরের দিকে চলতে থাকে এবং মেয়েটির বিভিন্ন স্পর্শকাতর স্থানে হাত দিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে।

 

 

 

এতে সে তাদের কবল থেকে ইজ্জত রক্ষা করতে সেলফি ব্রীজ নামক স্থানে চলন্ত সিএনজি থেকে লাফ দিয়ে রক্তাক্ত আহতের পর ধর্ষনের চেষ্টার ঘটনার সাথে জড়িত এ দুই জনকে গ্রেফতার করা হয়। এদিকে এ নেক্কারজনক ঘটনার সাথে জড়িত দুদু মিয়া ও আবুল বশরের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি দাবী জানিয়েছেন এলাকার সর্বস্তরের জনসাধারন।

 

 

আজকের স্বদেশ/তালুকদার