Logo

August 4, 2021, 4:23 pm

সংবাদ শিরোনাম :

কানাইঘাটে জমির মালিকদের হয়রানীর অভিযোগ

কানাইঘাট প্রতিনিধিঃ

কানাইঘাট উপজেলার বাউরভাগ ৩য় খন্ড মৌজায় অবস্থিত বি.এস জরিপে রেকর্ডয়ী মালিকানাধীন ১৮ শতক ফসলী জমির মালিকদের নানা ভাবে হয়রানীর অভিযোগ পাওয়া গেছে। জমির মালিক বাউরভাগ ১মখন্ড গ্রামের মৃত আব্দুল কাদিরের পুত্র আব্দুস সালাম ও গুরুকপুর গ্রামের মখরব আলী জানান ২টি দলিলের মাধ্যমে বাউরভাগ ৩য়খন্ড মৌজায় অবস্থিত জে.এল.নং-০৮, বিএস খতিয়ান নং-২৩৫, বিএস দাগ-২৪১ পরিমান ১৮ শতক জমি খরিদ করে প্রায় ১০ বছর পূর্ব  থেকে শান্তিপূর্ন ভোগ দখল করে আসছেন। বর্তমানে জমির যাবতীয় কাগজপত্র তাদের নামে রয়েছে।

 

 

 

কিন্তু প্রায় ২বছর থেকে এলাকার জনৈক সামছুল হক তাদের দখলীয় ও খরিদা এ ১৮ শতক জমি সম্পুর্ন অন্যায় ভাবে নিজের দাবী করে তাদের নানা ভাবে মামলা মোকাদ্দমা দিয়ে হয়রানী করে যাচ্ছেন বলে আব্দুস সালাম ও মখরব আলী সহ তাদের স্বজনরা জানিয়েছেন। সম্প্রতি কয়েকদিন পূর্বে এ ১৮শতক জমিতে প্রতি বছরের মতো তারা হাল চাষ করে আউশ ধানের চারা রোপন করেন যা এলাকার সবাই জানেন। জমিতে ধানের চারা রোপন করার পর সামছুল হক তাদের বিরুদ্ধে স্থানীয় প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরে সাজানো অভিযোগ দিয়ে বর্তমানে আবারো হয়রানী করে যাচ্ছেন।

 

 

 

 

 

যা উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) কর্মকর্তার কাছে প্রতিকার চেয়ে তারা লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। জমির মালিকরা জানান তাদের রেজিষ্টারি মূল্যে দখলীয় জমির মালিকানা দাবি করে সামছুল হক তাদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময়ে বেশ কয়েকটি অভিযোগ থানায় দায়ের করলে পৃথক পৃথক ভাবে তদন্ত করে কানাইঘাট সার্কেলের এএসপি আব্দুল করিম ও অন্যান পুলিশ কর্মকর্তারা সামছুল হকের দাবির পক্ষে কোন ধরনের কাগজপত্র না পেয়ে তাদের পক্ষে প্রতিবেদন দেন। তারপরও সামছুল হক নানা ভাবে হয়রানী করে যাচ্ছেন বলে তারা অভিযোগ করেন এবং এব্যাপারে স্থানীয় প্রশাসনের সহযোগিতা চেয়েছেন তারা।

 

 

 

আজকের স্বদেশ/তালুকদার