Logo

June 18, 2021, 9:42 am

সংবাদ শিরোনাম :

১৩ বছর আগে গুম হওয়া রুবেল ফিরলেন আল-আমিন হয়ে

আজকের স্বদেশ ডেস্ক::

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার আলীরটেকের কুড়েরপাড় এলাকার গুম হওয়া রুবেল ওরফে আল আমিন (২১) ১৩ বছর পর জীবিত ফিরে এসেছেন। তাকে গুমের অভিযোগে দুইজন বীর মুক্তিযোদ্ধাসহ ১৯ জনকে আসামি করে ২০০৭ সালে মামলাও হয়েছিল। এ মামলায় কয়েকজন জেলও খেটেছেন।

 

 

বুধবার (১৯ মে) রাতে রুবেল বাড়িতে ফিরে এসেছে এমন সংবাদে বৃহস্পতিবার (২০ মে) দুপুরে মামলার আসামিরা তাকে আটক করে জেরা করে।পরে তারা রাত ৮টার দিকে রুবেলকে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানায় নিয়ে আসে।পরে এ ঘটনায় ভুক্তভোগীরা রুবেলের ঘটনায় সঠিক বিচার দাবি করেন।

 

 

 

রুবেল জানায়, সে তার মা রহিমা খাতুনের মারধর ও ক্ষুদার যন্ত্রনায় বাড়ি থেকে বেরিয়ে নারায়ণগঞ্জ লঞ্চ টার্মিনালে আসে। পরে নারায়ণগঞ্জ রেলস্টেশন থেকে ট্রেনযোগে কমলাপুর যায়। সেখানে দীর্ঘদিন মানুষের কাছে হাত পেতে খেয়ে বেঁচেছিল। এরপর এক লোকের সঙ্গে পরিচয় হওয়ার পর ওই লোক রামপুরা একটি হোটেলে কাজ নিয়ে দেয়।এরপর বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করে। বর্তমানে মগবাজার মধুবাগ হাতিরঝিল সংলগ্ন মসজিদের পাশে ভাড়ায় বসবাস করে সেখানেই রং মিস্ত্রির কাজ করছে। আসল নাম রুবেল হলেও মগবাজারে রং মিস্ত্রি আল আমিন নামে সে পরিচিত।

 

 

 

রুবেল আরও জানায়, বাসা থেকে বেরিয়ে যাওয়ার ১০ বছর পর তার সঙ্গে তার মায়ের যোগাযোগ হয়। পরে সে কুঁড়েরপাড় আসতে চাইলে তার মা বলে তোকে এলাকায় নিয়ে গেলে মেরে ফেলবে। গত ছয় বছর ধরে সে এলাকায় আসতে চাইলেও তার মা তাকে আসতে দেয়নি। এক পর্যায়ে তার মাকে না জানিয়েই বুধবার রাতে কুঁড়ের পাড় নিজ বাড়িতে ফিরে আসে রুবেল।তখন তা মা বলে তুই কেন আসছোস, তোকে তো মেরে ফেলবে।

 

 

 

রুবেল জানায়, তার মা সুবিধাজনক না। সে অন্য লোকের প্ররোচনায় মামলা করেছে। তাকে ধরে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করলেই প্রকৃত ঘটনা বেরিয়ে আসবে।

 

 

এদিকে মামলার বাদী রুবেলের মা রহিমা খাতুন বৃহস্পতিবার সকাল থেকে পলাতক রয়েছেন। রুবেলের বাবার নাম জানু মিয়া।

 

 

 

 

আজকের স্বদেশ/তালুকদার