Logo

May 11, 2021, 9:48 am

সংবাদ শিরোনাম :
«» হবিগঞ্জে ভারতফেরত ৮ জন কোয়ারেন্টিনে «» জগন্নাথপুরে আরো দুজন করোনা শনাক্ত: মোট শনাক্ত ২২৩ «» আখাউড়া স্থলবন্দর দিয়ে ভারতফেরত নারীর করোনা শনাক্ত «» জগন্নাথপুরে বেগম আনোয়ারা ও সোনা মিয়া ট্রাস্টের বস্ত্র ও নগদ অর্থ বিতরণ «» ইউকে বিডি ইন্সফায়ারেড ফাউন্ডেশন ও হবিগঞ্জ বাংলাদেশ বাউল ফোরাম ইউকের নগদ অর্থ প্রদান «» জগন্নাথপুর ইয়াংস্টারের ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত «» ঈদের আগে কয়দিন ব্যাংক খোলা থাকবে? «» জগন্নাথপুরে পেরেন্টস কেয়ার ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ত্রান সামগ্রী বিতরণ «» মৌলভীবাজারে সাবেক ছাত্রদল অর্গানাইজেশন ফ্রান্স এর উদ্যাগে ইফতার ও ঈদ সামগ্রী বিতরণ «» রিমান্ড শেষে কারাগারে ‘শিশুবক্তা’ রফিকুল

মেসির জোড়া গোলে বার্সেলোনার জয়

স্পোর্টস ডেস্ক::

গত শনিবার শিরোপার লড়াইয়ে ছন্দপতন ঘটেনি দুই মাদ্রিদের। ভিন্ন ভিন্ন ম্যাচে জয় পেয়েছিল অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ ও রিয়াল মাদ্রিদ। আজ জয় পেল বার্সেলোনা।

ফলে এই তিন দিনে পয়েন্ট টেবিলে কোনো পরিবর্তন আসেনি। স্প্যানিশ লা লিগার চলতি মৌসুমে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষ চার দলই রয়েছে এবারে শিরোপার দৌড়ে মত্ত।  প্রতিটি ম্যাচই যেন একেকটি ফাইনালে পরিণত করেছে তারা।

রোববার রাতে ভ্যালেন্সিয়াকে ৩-২ গোলে হারিয়েছে বার্সেলোনা। এই জয়ের ফলে লিগ জয়ের আশা এখনও বাঁচিয়ে রাখল বার্সেলোনা।

এই জয়ে বার্সা অধিনায়কের অবদানই সবচেয়ে বেশি।  দারুণ ছন্দ দেখা গেছে মেসির পায়ে।  ৩ গোলের মধ্যে জোড়া গোল তারই।  অন্য গোলটি এসেছে বার্সার ফরাসি মিডফিল্ডার আতোয়াঁ গ্রিজম্যানের পা থেকে।

মেসির জাদু দেখানোর ওই ম্যাচের প্রথমার্ধ ছিল গোলশূন্য। ম্যাচের পাঁচটি গোলই হয়েছে দ্বিতীয়ার্ধে।

নিজেদের ঘরের মাঠে লিড নিয়েছিল ভ্যালেন্সিয়া। ৫০ মিনিটের সময় ম্যাচের প্রথম গোলটি করেন ভ্যালেন্সিয়ার গ্যাব্রিয়েল পাউলিস্তা।

এর ৬ মিনিট পর সমতায় ফিরতে পারত বার্সা। কিন্তু পেনাল্টি মিস করে হতাশা বাড়িয়েছিলেন খোদ অধিনায়ক মেসি।

ম্যাচের ৫৬ মিনিটের সময় ডি-বক্সের মধ্যে প্রতিপক্ষ খেলোয়াড়ের হ্যান্ডবলে পেনাল্টি পায় বার্সেলোনা। কিন্তু স্পটকিকটি সফল হয়নি মেসির।

এই হতাশা অবশ্য মুহূর্তেই উল্লাসে রূপ নেয়। কারণ মেসির পেনাল্টিশট ভ্যালেন্সিয়ার গোলরক্ষক ফিরিয়ে দিলে ফিরতি বলে শট নেন পেদ্রি। সেটিও প্রতিহত হলে বল চলে আসে মেসির পায়ে। এবার জোরালো শটে ভ্যালেন্সিয়ার জাল কাঁপান মেসি।

ওই গোলের ৬ মিনিট পর একই রকম ঘটনায় এগিয়ে যায় বার্সা। জর্ডি আলবার ক্রসে হেড করেন ফ্র্যাংকি ডি ইয়ং। সেটি ঠেকিয়ে দেন ভ্যালেন্সিয়া গোলরক্ষক। বল পেয়ে জোরালো শটে স্কোরশিটে নাম তোলেন ছয়েক ফ্রেঞ্চ ফরোয়ার্ড গ্রিজম্যান।

২-১ গোলে এগিয়ে যায় বার্সেলোনা। আবার ৬ মিনিট পর ব্যবধান আরও বাড়ায় বার্সা। জোড়া গোল আসে মেসির পা থেকে।

ডি-বক্সের বাইরে প্রায় ২০ গজ দূর থেকে দর্শনীয় এক ফ্রি-কিকে ভ্যালেন্সিয়ার রক্ষণকে বোকা বানিয়ে বল জালে প্রবেশ করেন মেসি।

৩-১ গোলে এগিয়ে যায় বার্সেলোনা। ম্যাচের ৮৩ মিনিটের সময় প্রায় ৩৫ গজ দূর থেকে এক বুলেট গতির শটে বার্সার জালে বল জড়িয়ে দেন ভ্যালেন্সিয়ার কার্লোস সোলার। ফলে স্কোরলাইন দাঁড়ায় ৩-২। এই গোলে ম্যাচে ফেরার সম্ভাবনায় ভ্যালেন্সিয়ার সমর্থকদের মধ্যে উল্লাস দেখা দিলেও হতাশা নিয়েই ফিরতে হয়।  সমতাসূচক গোল আর তারা পায়নি।

৩-২ গোলের ব্যবধানে মাঠ ছাড়ে দুদল।

এ জয়ের পর ৩৪ ম্যাচে বার্সেলোনার পয়েন্ট হলো ৭৪, অবস্থান তৃতীয়। সমান ম্যাচে সমান পয়েন্ট থাকলেও হেড টু হেডে এগিয়ে থাকায় দুই নম্বরে রিয়াল মাদ্রিদ। অন্যদিকে ৩৪ ম্যাচে ৭৬ পয়েন্ট নিয়ে সবার ওপরে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ।

 

 

 

আজকের স্বদেশ/এবি