Logo

May 11, 2021, 10:53 am

সংবাদ শিরোনাম :
«» রানীগঞ্জে ৫০০ টি পরিবার পেল নগদ অর্থ সহায়তা «» নড়াইলে চুইজাল গাছ চুরির অভিযোগে দুই শিশুর চুল কেটে দিলেন এলাকাবাসী «» হবিগঞ্জে ভারতফেরত ৮ জন কোয়ারেন্টিনে «» জগন্নাথপুরে আরো দুজন করোনা শনাক্ত: মোট শনাক্ত ২২৩ «» আখাউড়া স্থলবন্দর দিয়ে ভারতফেরত নারীর করোনা শনাক্ত «» জগন্নাথপুরে বেগম আনোয়ারা ও সোনা মিয়া ট্রাস্টের বস্ত্র ও নগদ অর্থ বিতরণ «» ইউকে বিডি ইন্সফায়ারেড ফাউন্ডেশন ও হবিগঞ্জ বাংলাদেশ বাউল ফোরাম ইউকের নগদ অর্থ প্রদান «» জগন্নাথপুর ইয়াংস্টারের ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত «» ঈদের আগে কয়দিন ব্যাংক খোলা থাকবে? «» জগন্নাথপুরে পেরেন্টস কেয়ার ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ত্রান সামগ্রী বিতরণ

ত্রাণ নিয়ে প্রকাশ্যে অভিযোগ, বৃদ্ধকে পেটালেন ইউপি সদস্য

আজকের স্বদেশ ডেস্ক::

ত্রাণ না পাওয়ার বিষয়ে প্রকাশ্যে অভিযোগ তোলায় চকিদার ও ইউপি সদস্য মিলে ইসলাম উদ্দিন(৬৪) নামে এক বৃদ্ধকে বেধড়ক পিটিয়েছেন। বুধবার রাত ৯টার সময় ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার ২০ নম্বর রুহিয়া পশ্চিম ইউনিয়ন পরিষদ ভবনের পাশের দোকানে ঘটে এ ঘটনা।

 

 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সদর উপজেলার রুহিয়া পশ্চিম ইউনিয়নের কশালগাঁও গ্রামের বাসিন্দা ইসলাম উদ্দিন ইউপি ভবনের পাশে এক দোকানে বসে আড্ডা দিচ্ছিলেন। এ সময় কয়েকজন ব্যক্তি গল্প করতে থাকেন যে, এবার সরকার ভিজিএফ চালের পরিবর্তে নগদ টাকা দিচ্ছে। তাতে গরীব মানুষদের ঈদের খরচ হয়ে যাবে। এ সময় বৃদ্ধ ইসলাম উদ্দীন বলেন, সরকারের উদ্যোগ ভালো, কিন্তু আমাদের জনপ্রতিনিধিরা খারাপ। আমি এখন পর্যন্ত একটা বয়স্ক ভাতার কার্ড পাইনি। কার্ডের জন্য মেম্বারের বাড়ি ঘুরতে ঘুরতে আমার অনেক সেন্ডেল ক্ষয় হয়ে গেল।

তিনি বলেন, আমরা গরীব মানুষ অথচ সরকারি কোনো সাহায্য পাই না। সরকার তো অনেক কিছুই দিচ্ছে। আর মেম্বারের কাছে গেলে বলেন কিছুই আসেনি”।

 

 

এসব আলাপের সময় উপস্থিত ছিলেন গ্রাম পুলিশ বলাই চন্দ্র। তিনি ইসলাম উদ্দীনের আলাপের বিষয়গুলো ইউপি সদস্য বিশ্ব নাথকে জানান। এরপর ইউপি সদস্য তাৎক্ষণিকভাবে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন এবং ইসলাম উদ্দিনকে চড়থাপ্পড় মারেন। এক পর্যায়ে বৃদ্ধ ইসলাম মাটিতে পড়ে গেলে তার ছেলে মোস্তাফা এগিয়ে এলে চকিদার ও মেম্বার তাকেও মারধর করেন।

 

 

এ ব্যাপারে নির্যাতনের শিকার ইসলাম উদ্দিন বলেন, আমি ত্রাণ পাইনা অভিযোগ করায় মেম্বার বিশ্বনাথ বর্মন আমাকে মারপিট করেছেন। আমি এ ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।

 

 

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ইউপি সদস্য বিশ্বনাথ বলেন, ইসলাম উদ্দিন আমাকে ও চেয়ারম্যানকে গালিগালাজ করেন। বিষয়টি জানতে পেরে চেয়ারম্যানকে বিষয়টা জানালে তার পরামর্শে আমি বৃদ্ধকে কয়েকটা চড়-থাপ্পড় মেরেছি।

 

 

অন্যদিকে ইউপি চেয়ারম্যান অনিল কুমার সেন বলেন, বৃদ্ধকে মারপিটের ব্যাপারে আমি কিছুই জানি না।

 

 

রুহিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) চিত্তরঞ্জন রায় বলেন, ২০ নম্বর রুহিয়া ইউনিয়ন পরিষদের এক মেম্বার এক বৃদ্ধকে মারপিট করেছেন শুনেছি। কেউ অভিযোগ না করায় কোনো পদক্ষেপ নেয়া হয়নি।

 

 

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, আমি শুনেছি বিষয়টি স্থানীয়ভাবে আপস-মীমাংসা করা হয়েছে।

 

 

 

 

আজকের স্বদেশ/এবি