1. abubakarpressjp@gmail.com : Md Abu bakar : Md Abubakar bakar
  2. sharuarpress@gmail.com : admin520 : Md Gulam sharuar
  3. : alamin328 :
  4. jewela471@gmail.com : Jewel Ahmed : Jewel Ahmed
  5. ksr.france@gmail.com : kawsar Mihir : kawsar Mihir
  6. ajkershodesh@gmail.com : Mdg sharuar : Mdg sharuar
বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ০৬:৫৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
কানাইঘাটে বিভিন্ন পূজা মন্ডপ পরিদর্শন করলেন আওয়ামীলীগ নেতা মস্তাক আহমদ পলাশ জগন্নাথপুরে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র জমা দিলেন রিনা বেগম কানাইঘাটের বিভিন্ন পূজা মন্ডপ পরিদর্শনে উপজেলা চেয়ারম্যান মুমিন চৌধুরী শান্তিগঞ্জে প্রতিমা বিসর্জনে শেষ হল শারদীয় দুর্গোৎসব কানাইঘাটে প্রতীমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে শান্তিপূর্ন পরিবেশে দুর্গাপূজা সম্পন্ন শান্তিনগর বাজার ডাঃ মধু সুধন ধর-এর বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা আমরা যুদ্ধ বিগ্রহ চাই না, সীমান্তে শান্তি চাই : শান্তিগঞ্জে পরিকল্পনামন্ত্রী জগন্নাথপুরে মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন Do Seresto Collars Kill Ticks Easy To Use জগন্নাথপুরে নৌকা পেলেন আকমল হোসেন

ঘুম থেকে উঠেই হাঁটবেন না

  • আপডেটের সময় : মঙ্গলবার, ৯ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৩৯৩ বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে

স্বদেশ ডেস্ক::

শরীর ভালো রাখতে নিয়মিত হাঁটার বিকল্প নেই। নিয়মিত হাঁটলে শরীর সতেজ থাকে। এছাড়া ওজনও কমে। কিন্তু যারা ওজন কমানোর জন্য হাঁটছেন তাদের কয়েকটি বিষয়ে সচেতন থাকা জরুরি।

কতটা হাঁটলে কত ক্যালরি ওজন কমে:

আধুনিক যুগে প্রযুক্তির সাহায্যে কত ক্যালরি পোড়ে তা সহজেই জানা যায়। তাতে দেখা গেছে, যখন কোনো ব্যক্তি ১০০০ স্টেপ হাঁটেন, তখন ৩০ থেকে ৪০ ক্যালরি পোড়ে। সেক্ষেত্রে যদি ১০,০০০ স্টেপ হাঁটা যায় তাহলে ৩০০ থেকে ৪০০ ক্যালোরি সহজেই ঝরানো যায়। যত দ্রুতগতিতে হাঁটা যায় প্রতি মিনিটে তত বেশি ক্যালরি পুড়বে। ধীরে ধীরে হাঁটলে প্রতি মিনিটে হয়তো ৩ ক্যালরির মতো পুড়বে। আর একটু বেশি গতিতে হাঁটলেই এর প্রায় দ্বিগুণ ক্যালরি পুড়বে। আর যদি দৌঁড়ানো বা জগিং করা যায় তাহলে ক্যালরি পোড়ানো দ্রুত হাঁটার চেয়েও দ্বিগুণ বাড়বে। আর হাঁটা বাদ দিয়ে পুরোপুরি দৌড়াতে শুরু করলে ক্যালরি পোড়ানোর হার আরও বাড়তে থাকবে।

 

 

 

 

 

 

হাঁটার গতি কেমন হবে:

হাঁটার সময় অনেকে বুঝতে পারেন না হাঁটার গতি কেমন হবে। তবে হাঁটার জন্য তেমন নির্দিষ্ট কোনো গতি নেই। প্রথমে ধীরে ধীরে হাঁটা শুরু করার পর আস্তে আস্তে গতি বাড়াতে হবে। শরীরের সঙ্গে তাল মিলিয়ে যতটুকু পারা যায় গতি বাড়াতে হবে। অনেকে ঘুম থেকে উঠেই হাঁটতে শুরু করেন। এটি মোটেই ঠিক নয়। ঘুম থেকে ওঠার কমপক্ষে ৩০ মিনিট পর হাঁটতে বের হওয়া উচিত।

 

 

 

 

 

 

 

হাঁটার সঙ্গে ব্যায়ামও :

হাঁটার পাশাপাশি কিছুদিন পর পর নতুন কিছু ব্যায়াম শুরু করুন। প্রথমে কিছুদিন হাঁটার সঙ্গে একটু করে দৌড়ান বা একটু করে যোগব্যায়াম করতে পারেন। এগুলোতে একঘেয়ে হয়ে গেলে কিছুদিন হাঁটার পাশাপাশি ভারোত্তোলন করুন কিংবা টেনিস বা ব্যাডমিন্টন খেলুন। এতে ওজন যেমন কমবে, তেমনি হাঁটাহাঁটিতেও একঘেয়েমি আসবে না।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের স্বদেশ/জে.এম

পোস্টটি আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ধরনের আরো সংবাদ দেখুন
© All rights reserved © 2022 আজকের স্বদেশ
Design and developed By: Syl Service BD