1. abubakarpressjp@gmail.com : Md Abu bakar : Md Abubakar bakar
  2. sharuarpress@gmail.com : admin520 : Md Gulam sharuar
  3. : alamin328 :
  4. jewela471@gmail.com : Jewel Ahmed : Jewel Ahmed
  5. ksr.france@gmail.com : kawsar Mihir : kawsar Mihir
  6. ajkershodesh@gmail.com : Mdg sharuar : Mdg sharuar
বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ০৭:৪৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
কানাইঘাটে বিভিন্ন পূজা মন্ডপ পরিদর্শন করলেন আওয়ামীলীগ নেতা মস্তাক আহমদ পলাশ জগন্নাথপুরে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র জমা দিলেন রিনা বেগম কানাইঘাটের বিভিন্ন পূজা মন্ডপ পরিদর্শনে উপজেলা চেয়ারম্যান মুমিন চৌধুরী শান্তিগঞ্জে প্রতিমা বিসর্জনে শেষ হল শারদীয় দুর্গোৎসব কানাইঘাটে প্রতীমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে শান্তিপূর্ন পরিবেশে দুর্গাপূজা সম্পন্ন শান্তিনগর বাজার ডাঃ মধু সুধন ধর-এর বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা আমরা যুদ্ধ বিগ্রহ চাই না, সীমান্তে শান্তি চাই : শান্তিগঞ্জে পরিকল্পনামন্ত্রী জগন্নাথপুরে মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন Do Seresto Collars Kill Ticks Easy To Use জগন্নাথপুরে নৌকা পেলেন আকমল হোসেন

হাওরত্ন এক কর্মবীর এম এ মান্নান

  • আপডেটের সময় : শুক্রবার, ২৫ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ৭০১ বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে

ভাটি বাংলা খ্যাত সুনামগঞ্জ জেলার দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার হাওরবেষ্টিত অজপাড়া গাঁ ডুরিয়ায় জন্মগ্রহণ করেন পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নান এমপি।

 

“আত্নপ্রত্যায়ী এক কর্মবীর হিসাবে সহজেই তাকে অভিহিত করা যায়। জীবন সংগ্রাম যাকে অনুধাবন করতে শিখিয়েছে হাওরবাসীর ব্যাথা-বেদনা। যিনি একজন সফল আমলা। উজানে সাঁতার কেটে যুদ্ধজয়ী এক আর্দশ মানুষ। যে কাজে সমাজের ভাল হবে,মানুষের ভাল হবে,তিনি তাতে নিজেকে বিলিয়ে দেন। এম এ মান্নান এম একজন মানুষ যিনি সত্যের উপর দাঁড়িয়ে পথ হাঁটেন। ভোগ- বিলাসিতা তাকে টানে না। কাজ এর সংকল্পের বাস্তাবায়নের মধ্যেই খুঁজে নেন জীবনের প্রাপ্তি।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

অপরিসীম স্মৃতিশক্তি,অমিত সাহস ও উদাহরণীয় কর্মোদ্যোগ,সরল মানসিকতা,প্রবল ব্যক্তিত্ব,সরস রসিকতা তার চরিত্রের অন্যতম বৈশিষ্ট্য। নিজ চারিত্রিক দৃঢ়তা ও সৃজনশীলতায় সবার কাছে তিনি প্রিয়। তিনি জনগণ,দল কিংবা প্রতিষ্ঠানের উঁচুস্তর থেকে শুরু করে নিম্ন স্তরের সবার সাথে কথা বলেন। মুখ ভরা হাসি তো লেগেই থাকে। শাসনের সাথে সাথে জনগণ কিংবা কর্মীদের কী ভাবে ভালোবাসতে হয়, তিনি তার উজ্বল দৃষ্টান্ত। যা সত্যি অতুলনীয়।

 

 

ছোট বেলায় তার গ্রামে কলেরায় আক্রান্ত হয়ে অসংখ্য মানুষ মারা যান। সেই মৃত্যুর মিছিলে যোগ দিয়েছিলেন তার দুই ভাই ও এক বোন। যে কারনে তাকে নিরাপদে রাখার জন্য বাবার বাড়ি ছাতকে পাড়ি জমান তার স্নেহময়ী জননী।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

অবহেলিত জনপদ থেকে ও নিজের মেধা আর যোগ্যতা দিয়ে ১৯৫৭ সালে পশ্চিম পাকিস্তান এয়ার ফোর্স স্কুলের ছাত্রত্ব লাভ করেন। সহপাঠীদের অধিকার আদায়ের জন্য তিনি শেরে বাংলা থেকে শহীদ সোহরাওয়ার্দী এর কাছে ও গিয়েছিলেন। পশ্চিম পাকিস্তান থেকে কৃতিত্বের সঙ্গে পাস করলে ও চোখের সমস্যার কারণে এয়ার ফোর্সে যোগ দানের সুযোগ থেকে বঞ্চিত হন এই মেধাবী।

 

হাল না ছেড়ে দেশে এসে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে কৃতিত্বের সঙ্গে বিএ পাস করেন। ১৯৬৬ সালে তিনি বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা কেয়ারে চাকরিরত্ব অবস্থায় হেলিকপ্টারে কুষ্টিয়ায় যাচ্ছিলেন। ফরিদপুরের লাগোয়া সোনাপুর গ্রামে তাকে বহনকারী হেলিকপ্টারটি বিধ্বস্ত হয়। ঐ হেলিকপ্টারে ২১জন যাত্রী, ২ জন পাইলট ও ১ জন স্টুয়ার্ট সব মিলিয়ে ২৪ জন যাত্রী ছিলেন। এক অবিস্মরণীয় ঘটনা। ঘটনা স্থলে তার সফরসঙ্গী ২৩ জনই মারা যান শুধু তিনি (মৃত্যুঞ্জয়) এক মাত্র ব্যক্তি যিনি আল্লাহর কৃপায় প্রানে বেঁচে যান।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

১৯৭০ সালে সিএসপি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে গোটা পাকিস্তানের মধ্য ১৩ তম ও পূর্ব-পাকিস্তানের মধ্যে প্রথম স্থান অধিকার করেন। কিন্তু স্বাধীনতা সংগ্রামের কারনে দেশ উপ্ত থাকায় তিনি চাকরিতে যোগ দিতে পারেন নি। স্বাধীনতার পর তিনি বঙ্গবন্ধু সাথে দেখা করেন। বঙ্গবন্ধু তার বক্তব্য মনযোগ দিয়ে শুনেন এবং তাকে চাকরিতে বহাল রাখেন।

 

তিনি একজন সত্যিকারের দেশ প্রেমিক ও আওয়ামী লীগ প্রেমিক ও বটে। যা তার আমলাতান্ত্রিক জীবন প্রত্যক্ষ করলে বুঝা যায়। যেখানে জড়িয়ে আছে সাধারণ মানুষ ও শেখ হাসিনাকে নিয়ে অসংখ্য স্মৃতি। তিনি রাষ্ট্রের একাধিক উচ্চ গুরুত্বপূর্ণ পদে সততা ও নিষ্ঠার সাথে ক্লিন ইমেজে দায়িত্ব পালন করেছেন।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আমলাতান্ত্রিক জীবনের পর শুরু হয় তার জীবনের রাজনৈতিক অধ্যায়। ভাটি বাংলার সিংহ পুরুষ খ্যাত আব্দুস সামাদ আজাদের মৃত্যুর পর সেই আসনটির হাল ধরতে এগিয়ে আসেন এম এ মান্নান। বিএনপি শাসন আমলে থাকায় আওয়ামী লীগ নিবার্চন বয়কট করলে ও তিনি শেখ হাসিনার অনুমতিক্রমে নিবার্চনে অংশগ্রহণ করলে ও স্থানীয় রাজনীতিবিদের অসযোগিতা ও বিরোধী দলের ক্ষমতার অপব্যবহারের কারনে সামান্য ভোটে পরাজিত হন। ২০০৯ ও ২০১৪ সালের নিবার্চনে তিনি আওয়ামিলীগ থেকে মনোনয়ন লাভ করে বিশাল ভোটে নিবার্চিত হন। যে কারনে শেখ হাসিনা তাকে অর্থ ও পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব দেন। সবশেষ নিবার্চনে জয় লাভ করার পর তিনি পরিকল্পনা মন্ত্রীর দায়িত্ব পান। যার দূরদর্শী নেতৃত্বে এগিয়ে চলছে দেশের মেগা প্রকল্প গুলি।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

পিছিয়ে পড়া হাওর বাসীর জন্য অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন এই স্বপ্নদ্রষ্টা। তার চাক্ষুষ নেতৃত্বের ফলে সুনামগঞ্জ চালু হতে যাচ্ছে দেশের ১৮ তম পাবলিক মেডিকেল কলেজ “বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ সুনামগঞ্জ”, ২০ তম বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় সুনামগঞ্জ, সুনামগঞ্জ টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং ইনষ্টিটিউট, ছাতক-সুনামগঞ্জ রেল লাইন, সুনামগঞ্জ-ধর্মপাশা সড়ক যোগাযোগ ফ্লাইওভার, রাজধানী ঢাকার সাথে যোগাযোগের জন্য পাগলা-আউশকান্দি সড়ক ও রানীগঞ্জ সেতু সহ প্রধানমন্ত্রী শেখ কর্তৃক প্রদত্ত একের পর এক উপহার হাওর বাসীকে দিয়ে যাচ্ছেন হাওর রত্ন খ্যাত এই গুনী ব্যক্তিত্ব এম এ মান্নান।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

এম এ মান্নান এমন এক জ্যোতির্ময় মানুষ যিনি সমাজের পিছিয়ে পড়া নারীদের কল্যাণের জন্য নিজের পৈতৃক ভিটা দান করেছেন। তিনি তার প্রতিটি বৈচিত্র‍্যময় কর্মগুনে অধিকার বঞ্চিত অসহায় মানুষের লুকায়িত স্বপ্নগুলোর প্রতিচ্ছবিতে পরিনত হয়েছেন।

সম্প্রতি মহামারি করোনা ভাইরাসের সাথে লড়াই করে জয় লাভ করে আবার ও উন্নয়নের আলো ছড়িয়ে যাচ্ছেন এই স্বপ্নসারথি।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনিমার্ণের লক্ষ্যে ক্ষুধা-দারিদ্র্য-শোষণ-বঞ্চনা ও দূর্নীতিমুক্ত একটি উন্নত-সমৃদ্ধ-আধুনিক রাষ্ট্র এবং শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে তোলার সংগ্রামে অগ্রনী ভূমিকা রেখে যাচ্ছেন এই কর্মবীর।

লেখক: মো. সুহেল রানা, তরুন সংগঠন ও সমাজসেবী, শ্রীরামসি, জগন্নাথপুর, সুনামগঞ্জ।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের স্বদেশ/জে.এম

পোস্টটি আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ধরনের আরো সংবাদ দেখুন
© All rights reserved © 2022 আজকের স্বদেশ
Design and developed By: Syl Service BD