1. abubakarpressjp@gmail.com : Md Abu bakar : Md Abubakar bakar
  2. sharuarpress@gmail.com : admin520 : Md Gulam sharuar
  3. : alamin328 :
  4. jewela471@gmail.com : Jewel Ahmed : Jewel Ahmed
  5. ajkershodesh@gmail.com : Mdg sharuar : Mdg sharuar
সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৩:৩৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
কানাইঘাট পৌর আওয়ামীলীগের ১নং ওয়ার্ডের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত নবীগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী আউশকান্দি হীরাগঞ্জ বাজার ব্যবসায়ী সমিতির নির্বাচন রবিবার সিলেট-৫ আসনে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী মাসুক আহমদ মাঠে তৎপর কানাইঘাটে কৃষকদের নিয়ে উদ্বুদ্ধকরণ সভা করলেন ইউএনও চীন ঘিরে তৈরি হচ্ছে মার্কিন সামরিক ঘাঁটি কানাইঘাট আব্দুল মালিক শিক্ষা ট্রাস্টের বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠান সম্পন্ন বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট জগন্নাথপুর উপজেলা শাখার কমিটি অনুমোদিত নবীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সহযোগিতায় ৩শ মানুষের মধ্যে শীতের চাদর বিতরণ সম্পন্ন জগন্নাথপুরে ফিসারীতে বিষ দিয়ে মাছ নিধন, এ কেমন শত্রুতা! নবীগঞ্জের হামলা ও লুটপাঠের ঘটনায় দাঙ্গাবাজ কনর মিয়া ও কবির মিয়ার ২ বছরের সাজা ও ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছে দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল

এনার্জি ড্রিংকস উৎপাদন আমদানি ও বাজারজাত নিষিদ্ধ

  • আপডেটের সময় : শনিবার, ৬ অক্টোবর, ২০১৮
  • ২৯৫ বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে

আমদানি বন্ধে সব কাস্টম হাউসকে চিঠি দিয়েছে নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ

আজকের স্বদেশ ডেস্ক::

সব ধরনের এনার্জি ড্রিংকসের উৎপাদন, আমদানি ও বাজারজাত নিষিদ্ধ করেছে সরকার। মানবদেহের জন্য ক্ষতিকারক ক্যাফেইনের মাত্রাতিরিক্ত উপস্থিতি পাওয়ায় এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ (বিএফএসএ) ও খাবারের মান নিয়ন্ত্রণকারী সংস্থা বিএসটিআই।

আমদানি বন্ধে ৪ অক্টোবর দেশের সব কাস্টম হাউসকে চিঠি দিয়েছে নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ। আর স্থানীয়ভাবে উৎপাদন ও বাজারজাত বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিএসটিআই।

 

বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের মতে, অতিরিক্ত ক্যাফেইন লিভারে চর্বি জমায়। হৃদপিণ্ডের রক্ত সরবরাহকারী ধমনিতে রক্ত চলাচল ধীর করে দেয়। বুক ধড়ফড়ানি, অনিয়মিত হৃদস্পন্দন, উচ্চরক্তচাপ, ঘুমের ব্যাঘাত, শরীরে অ্যাড্রেনালিন নামক হরমোনের মাত্রা বৃদ্ধি করে টানটান উত্তেজনা বৃদ্ধি ও কর্মক্ষমতা হ্রাস করে। দিনের পর দিন অতিরিক্ত ক্যাফেইন গ্রহণের ফলে রোগ নিরাময়ে ব্যবহৃত ওষুধও কাজ করে না।

 

 

কাস্টম হাউসে বৃহস্পতিবার পাঠানো নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের চিঠিতে বলা হয়েছে, বিএসটিআই নির্ধারিত মানবহির্ভূত কার্বোনেটেড বেভারেজ বিশেষত যেসব কার্বোনেটেড বেভারেজে ক্যাফেইনের মাত্রা প্রতি লিটারে ১৪৫ মিলিগ্রামের বেশি, সেগুলো আমদানি ও বিক্রি করা যাবে না। এ ধরনের কার্বোনেটেড বেভারেজ/ড্রিংকস আমদানি ও বন্দর থেকে খালাস বন্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে কাস্টমসকে বলা হল।

 

 

একই সঙ্গে কার্বোনেটেড বেভারেজের মোড়কে এনার্জি ড্রিংকস ঘোষণা দেয়া বিভ্রান্তিকর বিধায় লেবেলে এনার্জি ড্রিংকস মুদ্রিত কার্বোনেটেড বেভারেজ আমদানি বন্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে হবে। কার্বোনেটেড বেভারেজ খালাসের ক্ষেত্রে পরীক্ষা-নিরীক্ষা ছাড়া দেশে প্রবেশ করতে না দেয়ার জন্যও বলা হয়। এ চিঠির অনুলিপি জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর), বাণিজ্য মন্ত্রণালয়, খাদ্য মন্ত্রণালয়, বিএসটিআই ও ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরকে দেয়া হয়েছে।

 

 

জানা গেছে, নামসর্বস্ব অনেক দেশীয় কোম্পানি এনার্জি ড্রিংকসের নামে নেশাজাতীয় পানীয় দেশের বাজারে বিক্রি করছে। আবার বিদেশ থেকে আমদানিও হচ্ছে। এ ধরনের একটি পানীয় রেড বুল, যা রাজধানীর উঠতি তরুণদের কাছে বেশ জনপ্রিয়। এই এনার্জি ড্রিংকসের মোড়কে ঘোষিত তথ্যমতে, এতে প্রতি লিটারে ৩২০ মিলিগ্রাম ক্যাফেইন আছে। অন্যদিকে গ্রামের সহজ-সরল মানুষকে টার্গেট করে দেশীয় কিছু কোম্পানি এনার্জি ড্রিংকস বানাচ্ছে। গ্রামের ছোট টং দোকান ও হাটবাজারে যা বিক্রি করা হয়। সাধারণ মানুষ দীর্ঘমেয়াদে এসব ড্রিংকস সেবনে জটিল রোগে আক্রান্ত হচ্ছে।

 

জাতীয় নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের একটি সূত্র জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের (এফডিএ) নিয়মানুসারে যে কোনো পানীয়তে ক্যাফেইনের মাত্রা ২০০ মিলিগ্রাম পর্যন্ত স্বাভাবিক বলে ধরা হয়। কিন্তু গত বছর বাজার থেকে ৭টি কোম্পানির উৎপাদিত এনার্জি ড্রিংকস সংগ্রহ করে রাজধানীর তিনটি সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের ল্যাবরেটরিতে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। পরীক্ষায় সাতটি এনার্জি ড্রিংকসে ক্যাফেইনের মাত্রা ৭০০ মিলিগ্রামের কাছাকাছি পাওয়া গেছে।

 

 

 

সূত্র আরও জানায়, দেশীয় যেসব প্রতিষ্ঠান কার্বোনেটেড বেভারেজের লাইসেন্স নিয়ে এনার্জি ড্রিংকস উৎপাদন ও বাজারজাত করছে, সেগুলোর বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেয়া হবে। এর আগে বেশকিছু পরীক্ষায় দেশীয় কার্বোনেটেড বেভারেজে এনার্জি ড্রিংকসের মতো ক্যাফেইনের মাত্রা পাওয়া গেছে।

 

 

 

এখন নতুন করে বাজার থেকে নমুনা সংগ্রহের পর তা পরীক্ষা করা হবে। পরীক্ষায় বিএসটিআই নির্ধারিত মাত্রার চেয়ে বেশি ক্যাফেইন পাওয়া গেলে নিরাপদ খাদ্য আইন ২০১৩ অনুযায়ী শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে। এ বিষয়ে জানতে চাইলে নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান মাহফুজুল হক বলেন, এনার্জি ড্রিংকসের জাতীয় মান নেই। এ সুযোগে ৩২০ মিলিগ্রাম ক্যাফেইন সমৃদ্ধ ড্রিংকস আমদানি হচ্ছে, যা মানবদেহের জন্য ক্ষতিকর।

 

 

তাই এনার্জি ড্রিংকস আমদানি নিষিদ্ধ করা হয়েছে। আর কার্বোনেটেড বেভারেজ আমদানির ক্ষেত্রে কাস্টমস কর্তৃপক্ষ যাতে বিএসটিআইয়ের নির্ধারিত মান যাচাই-বাছাই করে পণ্য খালাস করে সেজন্য চিঠি দেয়া হয়েছে।

 

 

এর আগে ২৯ জুলাই এনার্জি ড্রিংকস নিয়ে বিএসটিআইয়ে একটি সভা হয়। ওই সভায় এনার্জি ড্রিংকসের জাতীয় মান প্রণয়ন ‘না’ করার নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়। পাশাপাশি কার্বোনেটেড বেভারেজেস ব্যতীত ‘এনার্জি ড্রিংকস’ বা অন্য কোনো নামে পণ্য উৎপাদন, আমদানি ও বাজারজাতকরণ বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

 

 

সভায় উপস্থিত এক শীর্ষ কর্মকর্তা জানান, বাজারে বিক্রীত সফট ড্রিংকসে ক্যাফেইনের মাত্রা প্রতি কেজিতে ১৪৫ মিলিগ্রাম থাকলেও এনার্জি ড্রিংকসে ৩২০ মিলিগ্রাম পাওয়া গেছে। তাই এনার্জি ড্রিংকসের নামে নেশাজাতীয় পানীয় বন্ধে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

 

 

 

আজকের স্বদেশ/জুয়েল

পোস্টটি আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ধরনের আরো সংবাদ দেখুন
© All rights reserved © 2022 আজকের স্বদেশ
Design and developed By: Syl Service BD