1. abubakarpressjp@gmail.com : Md Abu bakar : Md Abubakar bakar
  2. sharuarpress@gmail.com : admin520 : Md Gulam sharuar
  3. : alamin328 :
  4. jewela471@gmail.com : Jewel Ahmed : Jewel Ahmed
  5. ksr.france@gmail.com : kawsar Mihir : kawsar Mihir
  6. ajkershodesh@gmail.com : Mdg sharuar : Mdg sharuar
সোমবার, ০৮ অগাস্ট ২০২২, ১১:৩৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
হবিগঞ্জ -১ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী দুলাল আহমদ তালুকদার জগন্নাথপুরে বঙ্গমাতার জন্মবার্ষিকী পালিত নবীনগরে বাঁশের কারিগরদের পূর্ণবাসন না করে উচ্ছেদে ভোগান্তি!!! সীমান্ত এলাকায় বেপরোয়া চোরাচালান নিয়ে উদ্বেগ কানাইঘাট উপজেলার মাসিক আইন-শৃঙ্খলা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত চাগদা স্টিল ও আলতারা এন্টারপ্রাইজ এর সহযোগিতায় বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের মাঝে নগদ অর্থ বিতরণ কানাইঘাটে বঙ্গমাতা ফজিলাতুন নেছার ৯২তম জন্মবার্ষিকী উদ্যাপিত হবিগঞ্জ জেলা পুলিশের শ্রেষ্ঠ এএসআই (সহকারী উপ-পরিদর্শক) নির্বাচিত হলেন লোকেশ দাশ সুনামগঞ্জে খাদ্য সামগ্রী বিতরন কানাইঘাটে মুখোশধারীদের হামলায় কলেজ শিক্ষার্থী আহত আন্দোলন-সংগ্রামের সাক্ষী জগন্নাথপুর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার অবহেলায় নষ্ট হচ্ছে

সাহরিতে মুসলমানদের জাগিয়ে তোলেন এই শিখ

  • আপডেটের সময় : মঙ্গলবার, ২৯ মে, ২০১৮
  • ২৩৪ বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক::

আল্লাহ রাসুল দে পিয়ারো/জান্নাত দে তাবালগারো/উঠো রোজা রাখো (হে আল্লাহ ও রসূল ভক্ত/ হে জান্নাত প্রত্যাশি/ ওঠ রোজা রাখ)। কথাগুলো কোনো মুসলমানের নয়। কথাগুলো একজন শিখ ধর্মাবলম্বীর। তিনি এ কথাগুলো বলেই রমজানে সাহরিতে মুসলমানদের জাগিয়ে দেন। ব্যতিক্রম এ ঘটনাটি ঘটেছে কাশ্মিরের শ্রীনগরে। এ সংক্রান্ত একটি ভিডিও ক্লিপ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। ওই ভিডিও ক্লিপ থেকেই জানা গেছে এ ঘটনা সম্পর্কে।

২১ সেকেন্ডের ওই ভিডিওতে দেখা যায়, একজন শিখ ধর্মাবলম্বী ঢাক পিটিয়ে প্রতিবেশি মুসলমানদের সাহরিতে ঘুম থেকে জাগিয়ে দিচ্ছেন। আর মুখে এ কথাগুলো বলছেন। তবে প্রকাশিত ডিভিওটি আবছা থাকায় ওই ব্যক্তিকে সনাক্ত করা যায়নি।

হিন্দুস্তান টাইমসের খবরে বলা হয়, অজ্ঞাত ওই শিখ যেন সাহরিতে মুসলমানদের জাগিয়ে তোলার দায়িত্ব নিয়েছেন। ঘটনাটি ঘটেছে জম্মু-কাশ্মিরের পুলবমা জেলায়। বিষয়টি ইতোমধ্যে স্থানীয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আলোড়ন সৃষ্টি করেছে।

শিখ ব্যক্তির এমন কর্মকাণ্ড বেশ প্রশংসা কুড়িয়েছে। স্থানীয় ব্যক্তিরা এ কাজের তার উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করেছেন। তারা বলছেন, কাশ্মিরে শত বছর ধরে বিরাজমান সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতিকে তিনি বাস্তব রুপ দিয়েছেন।

সাহরিতে ডেকে দেয়ার জন্য সাধারণত স্থানীয়দের মধ্য থেকে একজন এ দায়িত্ব দেন। তবে অন্য কোনো ধর্মাবলম্বীর এ দায়িত্ব নেয়া বিরল। তবে হিন্দুস্তান টাইমস বলছে, এ ধরনের ঘটনা বিরল হলেও নতুন নয়।

ভিডিও

সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস।

 

 

 

 

আজকের স্বদেশ/জুয়েল

পোস্টটি আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ধরনের আরো সংবাদ দেখুন
© All rights reserved © 2022 আজকের স্বদেশ
Design and developed By: Syl Service BD