1. abubakarpressjp@gmail.com : Md Abu bakar : Md Abubakar bakar
  2. sharuarpress@gmail.com : admin520 : Md Gulam sharuar
  3. : alamin328 :
  4. jewela471@gmail.com : Jewel Ahmed : Jewel Ahmed
  5. ksr.france@gmail.com : kawsar Mihir : kawsar Mihir
  6. ajkershodesh@gmail.com : Mdg sharuar : Mdg sharuar
সোমবার, ১৫ অগাস্ট ২০২২, ০৯:০৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কানাইঘাটে শোকাবহ পরিবেশে বঙ্গবন্ধুর শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালিত রানীগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবস পালিত ১৫ আগষ্ট জাতির ইতিহাসে কলংকজনক অধ্যায়-নবীগঞ্জে শোক সভায় এমপি মিলাদ গাজী জগন্নাথপুরে শোক দিবস পালিত বিশ্বনাথে পিএফজি’র মাসিক ফলো-আপ সভা অনুষ্ঠিত বাসস এর সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি পদে নিয়োগ পেলেন আল-হেলাল মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত দেওয়ান নগরে রাস্তা পাকা করণ কাজের শুভ ভিত্তি প্রস্থর স্থাপন করলেন পীর মিসবাহ্ এমপি মহাসড়কের আউশকান্দিতে ডাকাতি প্রস্তুতিকালে আগ্নেয়াস্ত্র সহ আন্তঃজেলা ডাকাতদলের ৫ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে নবীগঞ্জ থানা পুলিশ শান্তিগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান ফারুক আহমদের সুস্থ্যতা কামনায় দোয়া

দুদকের ফাঁদে নৌপরিবহন কর্মকর্তা

  • আপডেটের সময় : বৃহস্পতিবার, ১২ এপ্রিল, ২০১৮
  • ৬৬২ বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে

আজকের স্বদেশ ডেস্ক::

দুদকের ফাঁদে ধরা পড়েছেন নৌপরিবহন অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী(চলতি দায়িত্বে) ড. এস এম নাজমুল হক। বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৫ টায় দুর্নীতি দমন কমিশনের একটি বিশেষ টিম সেগুন বাগিচায় সেগুন হোটেল থেকে ৫ লাখ টাকা ঘুষ গ্রহণকালে তাকে গ্রেফতার করে বলে দুদক জানায়। অভিযানে নেতৃত্ব দেন দুদকের ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের পরিচালক নাসিম আনোয়ার।

দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রনব ভট্টাচার্য জানান, অনাপত্তি প্রদানের নামে একটি লঞ্চ কোম্পানির কাছ থেকে ঘুষ গ্রহণকালে প্রধান প্রকৌশলী এসএম নাজমুল হককে হাতেনাতে গ্রেফতার করা হয়। তার বিরুদ্ধে রাজধানীর রমনা মডেল থানায় দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয় ঢাকা-১ এর সহকারী পরিচালক আবদুল ওয়াদুদ বাদী হয়ে এ বিষয়ে মামলা দায়ের করেছেন।

দুদক সূত্র জানায়, মেসার্স সৈয়দ শিপিং লাইন্সের এমভি প্রিন্স অব সোহাগ নামের যাত্রীবাহী নৌযানের রিসিভ নক্শা অনুমোদন এবং নতুন নৌযানের নামকরণের অনাপত্তি পত্র প্রদানের জন্য ওই কোম্পানির এক কর্মকর্তা প্রধান প্রকৌশলী এসএম নাজমুল হকের কাছে যান। এসময় প্রধান প্রকৌশলী তার কাছে ১৫ লাখ টাকা ঘুষ দাবি করেন। ইতোমধ্যে এজন্য তিনি প্রথম দফায় ৫ লাখ টাকা ঘুষ নেন। সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি বিষয়টি দুর্নীতি দমন কমিশনে অবহিত করেন। কমিশন সকল বিধি-বিধান অনুসরণ করে কমিশনের ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের পরিচালক নাসিম আনোয়ারে সার্বিক নেতৃত্বে ফাঁদ মামলা পরিচালনার অনুমতি দেয়।

লঞ্চ কোম্পানির ওই ব্যক্তি বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে ঘুষের টাকার দ্বিতীয় কিস্তি বাবদ ৫ লাখ টাকা নিয়ে সেগুন হোটেলে যান। এসময় দুদকের টিমও সেখানে গোপনে অবস্থান নেন। হোটেলে প্রধান প্রকৌশলী নাজমুল হক ওই ব্যক্তির কাছ থেকে ঘুষের ৫ লাখ টাকা গ্রহণ করছিলেন, ঠিক তখনই ওত পেতে থাকা দুদকের বিশেষ টিমের সদস্যরা তাকে হাতে-নাতে গ্রেফতার করেন।

রাত ৮টায় এরিপোর্ট লেখা পর্যন্ত গ্রেফতারকৃত নৌপরিবহন অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী (চলতি দায়িত্বে) ড. এস এম নাজমুল হককে রমনা থানায় রাখা হয়েছে বলে জানাযায়। আজ তাকে আদালতে হাজির করার কথা রয়েছে।

 

 

আজকের স্বদেশ/ফখরুল

পোস্টটি আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ধরনের আরো সংবাদ দেখুন
© All rights reserved © 2022 আজকের স্বদেশ
Design and developed By: Syl Service BD