1. abubakarpressjp@gmail.com : Md Abu bakar : Md Abubakar bakar
  2. sharuarpress@gmail.com : admin520 : Md Gulam sharuar
  3. : alamin328 :
  4. jewela471@gmail.com : Jewel Ahmed : Jewel Ahmed
  5. ajkershodesh@gmail.com : Mdg sharuar : Mdg sharuar
শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ০৮:৩৭ অপরাহ্ন
হেড লাইন
জগন্নাথপুরে ঈদুল আজহা উপলক্ষে হত-দরিদ্রের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ সাবেক মন্ত্রী ইমরান আহমদের পক্ষ থেকে গোয়াইনঘাটে ঈদ উপহার বিতরণ জগন্নাথপুর থানার ওসির উদ্যোগে ঈদ উপহার বিতরণ পাহাড়ি ঢলে বাড়ছে সুনামগঞ্জের ২৬ নদীর পানি বন্যার আশংকা জগন্নাথপুরে ঈদুল আজহা উপলক্ষে ফ্রেন্ডস্ ক্লাবের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ বিশ্বনাথ মডেল প্রেসক্লাবের সাথে উপজেলা চেয়ারম্যান সোহেল চৌধুরীর মতবিনিময় সুনামগঞ্জে বিশ্ব শিশুশ্রম প্রতিরোধ দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত রানীগঞ্জ ইউনিয়ন ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন নর্থ-ওয়েষ্ট ইউকে’র অর্থায়নে নগদ অর্থ বিতরণ জগন্নাথপুরে ২০টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবার ঘর পেল কোরবানী ঈদকে সামনে রেখে নবীগঞ্জে জমে উঠেছে পশুর হাট

বিদ্যুৎ এর ভয়াবহ লোডশেডিংয়ের প্রতিবাদে মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির উদ্যোগে অবস্থান কর্মসূচি ও স্মারকলিপি প্রদান

  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ৮ জুন, ২০২৩
  • ১৭০ শেয়ার হয়েছে

শেখ সাহেদ মিয়া, মৌলভীবাজার:
বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির উদ্যোগে অবস্থান কর্মসূচি ও স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। ৮ জুন বৃহস্পতিবার দুপুর ১২ ঘটিকার সময় বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড,বেজবাড়ি,মৌলভীবাজার নির্বাহী প্রকৌশলীর কার্যালয়ের সামনে মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির উদ্যোগে অবস্থান কর্মসূচি ও পরবর্তীতে তত্ত¡াবধায়ক প্রকৌশলীর বরাবরে স্মারক লিপি প্রদান করা হয়। উক্ত অবস্থান কর্মসূচি ও স্মারকলিপি প্রদানে বিএনপির সহ সভাপতি আব্দুল মুকিত এর সভাপতিত্বে ও জেলা বিএনপির সহ সম্পাদক মুহিতুর রহমান হেলাল এর পরিচালনায় প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন মৌলভীবাজার জেলা বিএনপি’র সাধারন সম্পাদক ও মৌলভীবাজার সদর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান (ভিপি মিজান), বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক আব্দুর রকিব সাবু, জেলা বিএনপির সহ সাংগঠনিক সম্পাদক মাহমুদুর রহমান, জেলা স্বেচ্ছাসেবকদলের সভাপতি স্বাগত কিশোর দাস চৌধুরী, মৌলভীবাজার পৌর বিএনপির সদস্য সচিব ও জেলা বিএনপির অর্থ সম্পাদক মনোয়ার আহমেদ রহমান, এছাড়াও অবস্থান কর্মসূচি ও স্মারকলিপি প্রদানে বক্তব্য রাখেন জেলা কৃষকদলের সদস্য সচিব মোনাইম কবীর, মৌলভীবাজার জেলা ছাত্রদলের সভাপতি মোঃ রুবেল মিয়া, জেলা জাসাস এর যুগ্ম আহবায়ক সাবেক ইউপি সদস্য ওয়াহিদুর রহমান জুনেদ সহ জেলা বিএনপি, পৌর বিএনপি ও অংগসংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

স্মারকলিপির বিস্তারিত প্রদান করা হয়।

বরাবর,
তত্ত্বাবধায় প্রকৌশলী
বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড
জেলাঃ মৌলভীবাজার।

মহোদয়,
জৈষ্ঠ্যের খরতাপে মানুষের জীবনে নাভিশ্বাস উঠেছে। এর ওপর বিদ্যুতের ভয়াবহ লোডশেডিংয়ে মানুষ এক ভয়াবহ দুর্বিষহ অবস্থার মধ্যে দিনাতিপাত করছে। গ্রামে চাহিদার তুলনায় ৩০/৩৫ শতাংশ বিদ্যুৎ কম পাচ্ছে পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড। গ্রাম-গঞ্জের মানুষ ২৪ ঘন্টায় মাত্র ২/১ ঘন্টা বিদ্যুৎ পায়। মফস্বল শহরগুলোতে রাতে ২ ঘন্টার বেশী বিদ্যুৎ থাকে না। দিনের বেলাও অধিকাংশ সময় লোডশেডিংয়ে আচ্ছন্ন থাকে। প্রচন্ড গরম ও যানবাহনের ধুমায়িত বহ্নিতে রাজধানী যেন গ্যাস চেম্বারে পরিণত হয়েছে। এখানেও দিনে-রাতে ৬/৭ ঘন্টার বেশী বিদ্যুৎ থাকে না। মানুষের বসতবাড়িতে সীমাহীন দুর্ভোগের পাশাপাশি বিদ্যুতের অভাবে ক্ষুদ্র, মাঝারী ও বৃহৎ শিল্প-কলকারখানায় উৎপাদন ব্যাপকভাবে ব্যাহত হচ্ছে ও পর্যায়ক্রমে সেগুলি বন্ধ হওয়ার উপক্রম হয়েছে। এর চেইন রিএ্যাকশনে ক্রমাগতভাবে কর্মহীন হবে লক্ষ লক্ষ মানুষ।

সরকারের সর্বোচ্চ ব্যক্তিদের আত্মীয়স্বজনকে প্রাইভেট কুইক রেন্টাল বিদ্যুৎ প্রকল্প দেয়া হয়েছে। তাদের বিপুলঅর্থবিত্তের মালিক বানানোর জন্য এই সকল প্রকল্প স্থাপনের সুযোগ দেয়া হয়। যাদের মধ্যে কেউ সিঙ্গাপুরে গিয়ে সর্বোচ্চ ধনীর তালিকায় স্থান পেয়েছেন। অথচ জনগণের পকেট কেটে হাজার হাজার কোটি টাকা আদায় করা হচ্ছে কেবলমাত্র এই খাতে ক্ষতিপূরণ দেয়ার জন্য। বিদ্যুৎ উৎপাদন না করেই ক্যাপাসিটি চার্জের নামে প্রায় ২০ হাজার কোটি টাকার উপরে পরিশোধ করা হচ্ছে। এই লুটপাটের পরিণতিই হচ্ছে অভাবনীয় লোডশেডিংয়ের আত্মপ্রকাশ। লোডশেডিংয়ের বর্তমান দুর্বিষহ পরিস্থিতির জন্য বর্তমান সরকারের গণবিরোধী নীতিই দায়ী। বিদ্যুৎ খাতে লুটপাটকে বৈধ করতেই ইনডেমনিটি আইন করা হয়েছে।
সরকার সবসময় বড় গলায় উদ্বৃত্ত বিদ্যুতের কথা বলে এসেছে। পরিবেশ ও মানুষের অস্তিত্বের কথা বিবেচনা না করে বিদ্যুৎ উৎপাদন বৃদ্ধির নামে রামপাল কয়লা বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপন করা হয়েছে। তাহলে আজ কেন এতো অসহনীয় বিদ্যুৎ বিপর্যয়। আসলে এই সরকারের আমলে বিদ্যুৎ খাতে চলেছে দুর্নীতির মহা তেলেসমাতি।
বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপি মনে করে-বিদ্যুৎ খাতে লুটপাটের সুযোগ দিয়ে আওয়ামী সরকার ফৌজদারী অপরাধ করেছে। সেজন্য এই রেন্টাল-কুইক রেন্টালের সাথে যারা জড়িত তাদের বিচার হওয়া উচিৎ। এরা জনগণের দুশমন বলেই বিদ্যুতের মতো অতি আবশ্যকীয় একটি খাতকে চুরির খনিতে পরিণত করেছে।
মুক্তিযুদ্ধের মূল চেতনা গণতন্ত্র এবং নির্বাচনকে বরবাদ করে আমজনতার মৌলিক নাগরিক চাহিদার সমাধানের পথে না গিয়ে মেগা প্রজেক্টের প্রতি অতি আগ্রহের প্রতিফলনই হলো বর্তমান দুর্বিষহ লোডশেডিং। মেগা প্রজেক্টের নামে মেগা চুরি ও কুইক রেন্টালের নামে কুইক চুরি বর্তমান সরকারের ঘোষিত কর্মসূচি।
বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপি অবিলম্বে অবর্ণনীয় লোডশেডিং বন্ধ এবং নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিত করে জনজীবনে স্বস্তি ফিরিয়ে আনতে জোরালো আহবান জানাচ্ছে।মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির উদ্যোগে অবস্থান কর্মসূচি ও স্মারকলিপি প্রদান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2024
Design and developed By: Syl Service BD