Logo

April 10, 2021, 9:34 pm

সংবাদ শিরোনাম :
«» প্রেমিকের সঙ্গে স্ত্রীকে বিয়ে দিলেন স্বামী «» সরকারের কারণেই করোনা বেড়ে গেছে: ফখরুল «» দ. সুনামগঞ্জে হাজী সায়েস্তা খাঁন ও মাহদী চ্যারিটেবল ট্রাস্ট‘র উদ্যোগে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ «» সুনামগঞ্জ জেলা যুবলীগের উদ্যোগে মাস্ক ও হেন্ড সেনিটাইজার বিতরণ «» দ. সুনামগঞ্জে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেছে আমানাহ এইড «» বিশিষ্ট সাংবাদিক হাসান শাহারিয়ার মৃত্যুতে সুনামগঞ্জ প্রেসক্লাবের শোক প্রকাশ «» বাহুবলে এম পি মিলাদ গাজীর সুস্হতা কামনায় মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত «» যাদুকাটা নদীর পাড়ে জব্দকৃত বালু-পাথর নিলামে বিক্রি করার দাবী স্থানীয়দের «» জগন্নাথপুরে ১৫০টি পরিবারের মধ্যে ইফতার সামগ্রী বিতরণ «» একদিনে সর্বোচ্চ ৭৭ জনের মৃত্যুর রেকর্ড

নবীগঞ্জে ফেসবুকে আল্লাহ ও হুজুরদের নিয়ে কটাক্ষ করায় হিন্দু যুবককে ১ মাসের কারাদণ্ড

নবীগঞ্জ (হবিগঞ্জপ্রতিনিধিঃ

আল্লাহ পাক ও হুজুরদের  নিয়ে ফেসবুকে কটুক্তি  মন্তব্য করার অপরাধে নবীগঞ্জে অর্পণ সুত্রধর (২৪) নামের এক হিন্দু যুবককে ১ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত৷ (৩০) মার্চ রাতে  তাকে স্থানীয়দের সহায়তায় আটক করতে সক্ষম হয় থানা  পুলিশ । পরে পুলিশ তাকে থানায় নিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করে৷

 

 

সাজাপ্রাপ্ত অর্পণ সুত্রধর নবীগঞ্জ  উপজেলার দীঘল বাক  ইউনিয়নের বহরমপুর গ্রামের  অরুন সুত্রধরের ছেলে। স্থানীয়রা জানান, অর্পণ সুত্রধর সে সোস্যাল মিডিয়া সামাজিক মাধ্যম  ফেসবুকে আল্লাহ পাক ও হুজুরদের নিয়ে  বাজে মন্তব্য করায় ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানে,এতে  এলাকার হাজারো  লোকজন এর প্রতিবাদে পবিত্র শবেবরাতের রাতে ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের মধ্যে এনিয়ে তীব্র ক্ষোভ ও উত্তেজনা দেখা দেয়,

 

 

 

 

 

 

পরে খবর পেয়ে  নবীগঞ্জ  থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে স্থানীয়দের সহায়তায় রাতেই  তাকে আটক করে সকাল ৭টায় ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করা হয়৷ পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) সুমাইয়া মোমিন এর আদালতে অভিযুক্ত অর্পণ সুত্রধর সে তার অপরাধ স্বীকার করায় তাকে ১মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড রায় প্রদান করে  ভ্রাম্যমাণ আদালত৷

 

 

 

এসময় উপস্থিত ছিলেন হবিগঞ্জ পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্লাহ্৷ নবীগঞ্জ থানার ওসি ডালিম আহমেদ সহ আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর লোকজন সহ আরো অনেকেই৷  উল্লেখ্যঃ দন্ডপ্রাপ্ত অর্পণ সুত্রধর কর্তৃক একটি ফেসবুক কমেন্টে আল্লাহ  ও হুজুরদের নিয়ে বাজে মন্তব্য করায ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের মধ্যে বিষয়টি জানাজানি হলে হলে গতকাল  গভীর রাত পর্যন্ত এলাকায় এনিয়ে  হাজারো তাওহীদি জনতা ও  স্থানীয়দের মাঝে তীব্র  ক্ষোভ ও উত্তেজনা  দেখা দেয়৷

 

 

 

 

 

এসময়  ওই ছেলেকে ধাওয়া করে জনতা, পরে ছেলেটি দৌড়ে গিয়ে আত্মগোপন করে। খবর পেয়ে নবীগঞ্জ থানার ইনাতগঞ্জ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ শামসুদ্দিন খান একদল পুলিশ নিয়ে অভিযান চালিয়ে  তাকে স্থানীয়দের সহায়তায় আটক করেন। তাকে আটকের  পর এলাকার উত্তপ্ত  পরিবেশ শান্ত হয়।

 

 

 

আজকের স্বদেশ/তালুকদার