Logo

April 10, 2021, 11:04 pm

সংবাদ শিরোনাম :
«» প্রেমিকের সঙ্গে স্ত্রীকে বিয়ে দিলেন স্বামী «» সরকারের কারণেই করোনা বেড়ে গেছে: ফখরুল «» দ. সুনামগঞ্জে হাজী সায়েস্তা খাঁন ও মাহদী চ্যারিটেবল ট্রাস্ট‘র উদ্যোগে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ «» সুনামগঞ্জ জেলা যুবলীগের উদ্যোগে মাস্ক ও হেন্ড সেনিটাইজার বিতরণ «» দ. সুনামগঞ্জে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেছে আমানাহ এইড «» বিশিষ্ট সাংবাদিক হাসান শাহারিয়ার মৃত্যুতে সুনামগঞ্জ প্রেসক্লাবের শোক প্রকাশ «» বাহুবলে এম পি মিলাদ গাজীর সুস্হতা কামনায় মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত «» যাদুকাটা নদীর পাড়ে জব্দকৃত বালু-পাথর নিলামে বিক্রি করার দাবী স্থানীয়দের «» জগন্নাথপুরে ১৫০টি পরিবারের মধ্যে ইফতার সামগ্রী বিতরণ «» একদিনে সর্বোচ্চ ৭৭ জনের মৃত্যুর রেকর্ড

জগন্নাথপুর-সুনামগঞ্জ সড়কের সেই সেতুর ভেঙে যাওয়া গার্ডার অপসারণ চলছে

বিশেষ  প্রতিনিধি::

সুনামগঞ্জের কুন্দানালা খালের উপর নির্মিতব্য সেতুর ভেঙে পড়া গার্ডার অপসারণ শুরু হয়েছে। বুধবার সকাল থেকে এই গার্ডারগুলো অপসারণের কাজ শুরু হয়। সুনামগঞ্জ-সিলেট সড়কের ডাবর পয়েন্ট থেকে জগন্নাথপুর-আউশকান্দি হয়ে রাজধানী ঢাকার দূরত্ব কমানোর জন্য সড়কের প্রশস্তকরণের কাজ হচ্ছে গত কয়েক বছর ধরে। এই সড়কে ৬ মাস আগে ৭টি নতুন সেতুর কাজ শুরু হয়। গত রবিবার সন্ধ্যায় ১০ কিলোমিটারের মাথায় কুন্দানালা খালের উপর নির্মিতব্য সেতুর ৫ টি গার্ডার একে একে ভেঙে যায়।

 

 

 

ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের প্রকৌশলী হারুন অর রশিদ তাৎক্ষণিক দাবি করেন, কাজে কোন অনিয়ম হয় নি। ১৬০ টন ওজনের গার্ডার বসানোর সময় হাইড্রোলিক পাইপ ফেটে যাওয়ায় ওজন নিতে পারে নি, একটার ওপর আরেকটা পড়ে সব কয়টি ভেঙে গেছে।

 

 

 

এদিকে স্থানীয় লোকজন দাবি করেছেন, এই সড়কে নির্মিতব্য ৭ সেতুতেই অনিয়ম হচ্ছে। অনিয়মের কারণেই এই ধ্বসের ঘটনা ঘটেছে। গণমাধ্যম কর্মীদের সঙ্গে কথা বলার সময় স্থানীয়রা এই সেতুগুলোর নির্মাণ কাজ সঠিক হচ্ছে কী-না, ডিজাইন ঠিক হয়েছে কী-না এসব বিষয় বিশেষজ্ঞ প্রকৌশলীদের দিয়ে তদন্ত করার দাবিও জানান।

ঘটনার পর মঙ্গলবার সড়ক ও সেতু মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (পরিকল্পনা) মো. জাকির হোসেনকে প্রধান করে এই ঘটনা তদন্তে জন্য ৪ সদস্যের তদন্ত টিম গঠন করা হয়।

 

 

 

 

 

সুনামগঞ্জ সড়ক ও জনপথ বিভাগের উপবিভাগীয় প্রকৌশলী নজরুল ইসলাম বলেন, সেতুর গার্ডার নির্মাণ কাজে অনিয়ম হয়েছে যারা দাবি করেছেন, গার্ডার ভাঙার সময় এসে যাচাই করতে পারেন তারা। তিনি জানান, ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানই গার্ডার অপসারণ করছে, যথা সময়ে নতুন করে আবার গার্ডার নির্মাণ করে দিতে হবে তাদেরকেই।

 

 

 

আজকের স্বদেশ/তালুকদার