Logo

April 17, 2021, 12:23 am

সংবাদ শিরোনাম :

সিংচাপইড় ইউনিয়নকে আধুনিক ও মডেল ইউনিয়ন গড়তে চান রাসেল মিয়া

ছাতকের ঐতিহ্যবাহী সিংচাপইড় ইউনিয়নকে একটি উন্নয়ন সমৃদ্ধ আধুনিক ও মডেল ইউনিয়ন হিসেবে গড়তে চান আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী রাসেল মিয়া। এরজন্য তিনি সকলের সমর্থন, সহযোগিতা ও দোয়া কামনা করেছেন। রাসেল মিয়া সিংচাপইড় ইউনিয়নের সিংচাপইড় গ্রামের বাসিন্দা মরহুম মাহমদ আলীর পুত্র।

 

 

 

 

 

রোববার গণমাধ্যমে প্রেরিত এক বিবৃতিতে চেয়ারম্যান প্রার্থী রাসেল মিয়া বলেন, হযরত শাহ জালাল (রহ.) ও হযরত শাহ পরান (রহ.)সহ ৩৬০আউলিয়ার স্মৃতি বিজড়িত পুণ্যভূমি সিলেট বিভাগের শিল্পনগরী খ্যাত ছাতক উপজেলার দক্ষিণাঞ্চলে অবস্থিত ঐতিহ্যবাহী ৭নং সিংচাপইড় ইউনিয়ন। প্রায় ১৬হাজার ভোটার অধ্যুষিত এ ইউনিয়নে প্রচুর উন্নয়ন সম্ভাবনা থাকা সত্ত্বেও আজও অনেকটা পিছিয়ে। স্বাধীনতার প্রায় অর্ধশত বছর পার হলেও এখানে নেই দৃশ্যমান কোনো উন্নয়নের ছোঁয়া। এখানকার বিশাল জনগোষ্ঠী আজও যাতায়াত ব্যবস্থা থেকে শুরু করে উন্নয়ন অগ্রযাত্রার দৌড়ে বহুগুণ পিছিয়ে রয়েছে।

 

 

 

 

 

 

 

তাছাড়া দেশে শতভাগ দারিদ্র বিমোচনের লক্ষে প্রান্তিক কৃষকসহ দিনমজুর কিংবা স্বল্প আয়ের মানুষের জন্য সরকার প্রদত্ত বিভিন্ন আর্থিক প্রণোদনা, বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতার মতো নগদ অর্থ ও দূর্যোগকালীন ত্রান সহায়তার অসম বন্টন এবং স্বজনপ্রীতির কারনে ইউনিয়নের অনগ্রসর জনগোষ্ঠীর হতাশার দীর্ঘশ্বাস দিনে দিনে আরো দীর্ঘ হচ্ছে। এমনকি ইউনিয়ন পরিষদের দৈনন্দিন কার্য্য পরিচালনার জন্য দেশজুড়ে যখন নান্দনিক ইউনিয়ন পরিষদ ভবনগুলো চক্ষু শীতল করে তখনো এখানকার প্রতিদিনকার কার্য্য পরিচালনা হচ্ছে জরাজীর্ণ সেকেলের পুরনো এক ভবনে। আজবধি একটি আধুনিক মানসম্মত কার্যলয়েরও কোনো সুরাহা হয়নি।

 

 

 

 

 

 

 

তিনি বলেন, বর্তমান সরকারের আমলে সারাদেশে তথা ছাতক উপজেলার অন্যান্য ইউনিয়নের প্রত্যন্ত এলাকা গুলোতেও যখন উন্নয়নের মহাযজ্ঞ চলছে, সেই সময়ে আমাদের পিছিয়ে থাকা ইউনিয়নে একজন সৎ, নিষ্ঠাবান, কর্মট ও যোগ্য জনপ্রতিনিধির অভাব প্রকটভাবে ফুটে উঠেছে। আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সেই অভাব দূর করতে আপনাদের সচেতনা ও ন্যায়নিষ্ঠ বিবেক বিবেচনার কোনো বিকল্প নেই।

 

 

 

 

 

 

 

তিনি আরো বলেন, আমি মনে করি এলাকায় শিক্ষা ও স্বাস্থ্য সেবার উন্নয়ন, মাদকদ্রব্য চোরা-চালান ও জুয়া-যাত্রা নির্মূল করণসহ নারী ও শিশু নির্যাতন রোধ, বাল্য বিবাহ ও বহুবিবাহ প্রতিরোধ, সমাজের সহিংসতা বন্ধ, যুব সমাজকে মাদকদ্রব্য সেবনের হাত থেকে ফিরিয়ে আনার অব্যাহত প্রচেষ্টা, যথাযথ মর্যাদায় আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা, নেতিয়েপড়া অবহেলিত জনগোষ্ঠীদের সার্বিক সহযোগিতা, আমন ও বোরো উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে সেচের ব্যবস্থা, রাস্তা নির্মাণ, বিদ্যুতায়ন, লেখাপড়ার মানোন্নয়ন, খেলাধুলার ব্যবস্থাসহ বিভিন্ন পদক্ষেপের মাধ্যমে অবহেলিত ইউনিয়নকে একটি আধুনিক ও মডেল ইউনিয়ন হিসেবে গড়ে তুলা সম্ভব।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আমার দৃঢ় বিশ্বাস আপনারা যদি আমাকে আপনাদের সুচিন্তিত বিবেচনায় রাখেন, তবে আমি নিষ্ঠার সাথে আপনাদেরকে সঙ্গে নিয়ে আগামী দিনে আপনাদের আস্থার প্রতিদান দিতে সর্বাত্মক সচেষ্ট থাকবো এবং পিছিয়ে পড়া ইউনিয়নকে উন্নয়নের স্রোতধারায় নিয়ে যেতে সমর্থ হবো ইনশাআল্লাহ। এরজন্য তিনি সকলের সমর্থন, সহযোগিতা ও দোয়া কামনা করেছেন। (বিজ্ঞপ্তি)

 

 

 

আজকের স্বদেশ/তালুকদার