Logo

January 23, 2021, 1:16 pm

সংবাদ শিরোনাম :
«» কানাইঘাটে জেলা প্রশাসক ভূমিহীনদের ঘর সহ জমি প্রদান বিশে^র ইতিহাসে বিরল «» আজ আমার অত্যন্ত আনন্দের দিন : প্রধানমন্ত্রী «» জগন্নাথপুর ক্রীড়া সংস্থার সাধারন সম্পাদক মাহবুব রহমান আর নেই «» বন্দির সঙ্গে নারীর সাক্ষাৎ : ডেপুটি জেলারসহ ৩ জন প্রত্যাহার «» ইউপি নির্বাচনে ঝিকরগাছা গদখালী ইউনিয়নে নৌকা প্রত্যাশী -মাহবুবুর রহমান দুলাল «» রানীগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী হচ্ছেন ইউকে প্রবাসী হাজী মো: ছালিক মিয়া «» ফেনী ডায়াবেটিস হাসপাতালকে আর্থিক সহায়তা দিয়েছে সালেহ উদ্দিন-হোসনে আরা চৌধুরী ফাউন্ডেশন «» ছাতকে নবনির্বাচিত মেয়রকে ১নং ওয়ার্ডবাসীর শুভেচ্ছা «» জেলা প্রশাসকের উপস্থিতিতে শনিবার কানাইঘাটে ১৯৩টি পরিবার ঘর পাবেন «» ছাতক মৃদুল কান্তি দাস মিন্টুর পরলোকগমন

দোয়ারাবাজারে ইউপি নির্বাচনের হাওয়ায় তৎপর প্রার্থীরা

এম মোতালিব ভুঁইয়া::

আসন্ন ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সম্ভাব্য প্রার্থীদের প্রচার-প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পার করছেন। আগামী বছরের মার্চেই অনুষ্ঠিত হতে পারে ইউপি নির্বাচন। থাকতে পারে দলীয় প্রতীক। এরই প্রেক্ষিতে সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার উপজেলায় আসন্ন ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বইছে আগাম নির্বাচনী হাওয়া।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

সম্ভাব্য প্রার্থীদের শুভেচ্ছা ব্যানার ও ফেস্টুনে ভরে গেছে হাট-বাজার। বাড়ি বাড়ি কুশল বিনিময়ও করছেন অনেকেই। চায়ের দোকানে দোকানে বইছে সম্ভাব্য প্রার্থীদের নিয়ে বিশ্লেষণ। ইউপি নির্বাচনকে সামনে রেখে সম্ভাব্য প্রার্থীদের প্রচার-প্রচারণা এরমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও সমানতালে চলছে।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আসন্ন ইউপির নির্বাচনকে সামনে রেখে দোয়ারাবাজার উপজেলার ৯টি ইউপির সম্ভাব্য চেয়ারম্যান, মহিলা মেম্বার ও মেম্বার পদ প্রার্থীদের মাঝে বিভিন্ন কৌশলে চলছে প্রচার-প্রচারণা। ইউপি চেয়ারম্যান পদে দলীয় মনোনয়ন পেতে নেতার কাছে উপহার-উপঢৌকন নিয়ে দৌড়ঝাপ করছেন মনোনয়ন প্রত্যাশীরা।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

সর্বশেষ ২০১৬ সালের ২৩ এপ্রিল দোয়ারাবাজার উপজেলার ৯টি ইউপিতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। দোয়ারাবাজার উপজেলার মোট ভোটার সংখ্যা ১ লাখ ৮১ হাজার ২শত ৬৯ জন। এরমধ্যে পুরুষ ভোটার ৯২হাজার ৬ শত ৫৯ জন এবং মহিলা ভোটার ৮৮হাজার ৬ শত ১০জন।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

ইতোমধ্যে, উপজেলার বাংলাবাজার,নরসিংপুর,দোয়ারাবাজার সদর,মান্নারগাও, পান্ডারগাও, দোহালিয়া, লক্ষীপুর, বোগলাবাজার ও সুরমা ইউনিয়নে নির্বাচনকে সামনে রেখে সম্ভাব্য প্রার্থীদের কেউ কেউ এলাকার ভোটারদের মাঝে দিচ্ছেন আগাম প্রতিশ্রুতি। এছাড়াও নানা রকম কৌশল অবলম্বন করে বিভিন্ন সামাজিক কাজে, অনুষ্ঠানে, পূজামন্ডপে আর্থিক সহায়তা করে প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন সম্ভাব্য প্রার্থীরা। ভোটের মাঠে নিজেদের অনুকূলে নিতে মরিয়া হয়ে উঠেছেন অনেকেই।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

দলীয় সমর্থন পেতে একই ইউনিয়নে একাধিক প্রার্থীর পক্ষ থেকে চলছে নানারকম তদবির। তফসিল ঘোষণার সম্ভাব্য তারিখ পুরোপুরি নিশ্চিত না হলেও দলীয় সমর্থন পাওয়ার জন্য তৎপর হয়ে উঠেছে ওইসব ইউপির সম্ভাব্য প্রার্থীরা। দরিদ্র ভোটারদের কাছে টানতেই সাহায্য-সহযোগিতা ও মানবিক আচরণের ছড়াছড়ি চলছে বলে মনে করছেন নির্বাচন বিশ্লেষকরা।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

তারা বলছেন, দয়া, দোয়া ও আশীর্বাদ সংগ্রহের রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়ছেন সম্ভাব্য প্রার্থীরা। কে বেশি আগাতে পারেন তা নিয়ে রীতিমতো চলছে প্রতিযোগিতা। আবার ভোটাররাও নানা হিসাব-নিকাশ করছেন প্রার্থীদের আচরণের ধরণ নিয়ে। কোন প্রার্থী কত টাকা সহায়তা দিলেন, কারা সহায়তা পেল আর কারা পেল না তা নিয়েও চলছে আলোচনা-সমালোচনা।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

জানা গেছে, সম্ভাব্য প্রার্থীরা নানাভাবে প্রস্তুতি নিচ্ছেন। নৌকা-ধানের শীষ প্রতীক পেতে চেয়ারম্যান প্রার্থীরা নেতাদের কাছে দৌড়ঝাপ করছেন। দলের সমর্থন পেতে তদবির চালিয়ে যাচ্ছেন। তৃণমূলপর্যায়ে নানা উন্নয়ন কর্মকাণ্ড, জনসংযোগ, দলীয় ও স্থানীয় সভা-সমাবেশ এবং সামাজিক কর্মকাণ্ডে অংশ নিচ্ছেন। পাশাপাশি দলীয় সমর্থন পেতে সিনিয়র নেতাদের আস্থাভাজন হওয়ারও চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

স্থানীয় সরকার (ইউপি) আইন অনুযায়ী, আগের নির্বাচনের পাঁচ বছর পূর্ণ হওয়ার ছয় মাসের মধ্যে (মেয়াদ শেষের আগের ১৮০ দিন) নির্বাচন করতে হবে। পরিষদের জনপ্রতিনিধিদের মেয়াদ থাকবে পরিষদের প্রথম সভা থেকে পরবর্তী পাঁচ বছর। দেশে এ পর্যন্ত নয়টি ইউপি নির্বাচন (১৯৭৩, ১৯৭৭, ১৯৮৩, ১৯৮৮, ১৯৯২, ১৯৯৭, ২০০৩, ২০১১ এবং ২০১৬ সালে) হয়েছে।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের স্বদেশ/জে.এম