Logo

June 2, 2020, 7:49 pm

সংবাদ শিরোনাম :
«» মডার্নার করোনা ভ্যাকসিনের পরীক্ষার ফল খুবই আশাব্যঞ্জক «» লোভাছড়া পাথর কোয়ারীতে সব ধরনের কার্যক্রম বন্ধে নিষেধাজ্ঞা জারি «» ১২৫৬ জনকে মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি দিয়ে গেজেট প্রকাশ «» কানাইঘাটে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া প্রথম ব্যক্তির দাফন সম্পন্ন «» প্রাথমিক বিদ্যালয় না খোলার সিদ্ধান্ত আসছে «» জগন্নাথপুরে অজ্ঞাতনামা লাশের পরিচয় সনাক্ত করতে পুলিশের সাহায্য কামনা «» ছাতকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে ভ্রাম্যমান আদালতের জরিমানা «» মহাসংকটে পতিত জনগণের উপর বর্ধিত গণপরিবহনের ভাড়া প্রত্যাহার করুন «» বাবা নামের বটগাছটি হারিয়েও থেমে যায়নি শাওন: সব বাধা পেরিয়েও এসএসসিতে এ প্লাস পেল «» মীরপুর ইউনিয়ন পরিষদের ২০২০-২০২১ অর্থ বছরের উন্মুক্ত বাজেট ঘোষনা

জগন্নাথপুরে সরকারি ভূমি দখল করতে গিয়ে: প্রভাবশালীদের হামলায় মহিলা সহ আহত ৭

জহিরুল ইসলাম লাল::

জগন্নাথপুর উপজেলার কলকলিয়া ইউনিয়নের কালিটেকী গ্রামে সরকারী ভূমি দখলকে কেন্দ্র হামলায় মহিলা সহ ৭জন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে ৩জনকে আশংকা জনক অবস্থায় সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করেছে।

 

 

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, কালিটেকি গ্রামে সরকারী ভুমি নিয়ে পাড়ারগাঁও গ্রামের এরশাদ আলীর ছেলে চন্দন মিয়া ও কালিটেকী গ্রামের কোকিলা বেগমের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। এরই জের ধরে শুক্রবার (২২ মে) বিকেল ৩টায় চন্দন মিয়া ও তোতা মিয়া সহ তার লোকজন সরকারি ভুমি দখল করতে গেলে প্রতিপক্ষ কোকিলা বেগমের লোকজন বাঁধা দিলে তোতা মিয়া ও চন্দন মিয়ার লোকজন তাদের উপর হামলা করে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে মারধর করে।

 

 

 

 

এ সময় কোকিলা বেগমের ঘর ভাঙ্গচুর করে লুটপাট করে মালামাল নিয়ে যায়। হামলায় মহিলা সহ ৭জন আহত হন। আহতরা হলেন নেছার আলম (৩০), কোকিলা বেগম (৪৮), স্বপ্না বেগম (৫০), আমিনা বেগম (৭০), শাহেনা বেগম ((২৪)। আহতদের মধ্যে নেছার আলম, কোকিলা বেগম, স্বপ্না বেগমকে গুরুতর আহত অবস্থায় সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে এবং উপর পক্ষের ২জন সহ অন্যান্যদের চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

 

 

 

 

 

এ ব্যাপারে কোকিলা বেগম বলেন, আমি ভুমিহীন মানুষ কোন জমি জমা আমার নাই। সামান্য সরকারী জায়গায় দীর্ঘদিন ধরে ছেলে মেয়েদের নিয়ে বসবাস করে আসছি। ভূমিহীন হিসেবে সরকারের কাছে আমার বন্ধোবস্তের আবেদন রয়েছে। পাশ্ববর্তি গ্রামের চন্দন মিয়া ও তোতা মিয়া আমার উক্ত জমি দখল করতে দীর্ঘ দিন ধরে চেষ্টা করে যাচ্ছে।

 

 

 

 

 

 

তাদের জ্বালায় এলাকার নিরহ লোকজন অসহায়। তারা আমি সহ আমাদের পরিবারের লোকজনকে আহত করে ঘর ভাঙ্গচুর করে সব কিছু নিয়ে গেছে। তাদের বিরুদ্ধে সরকারের কাছে বিচার চাই। এ ব্যাপারে জানতে চন্দন মিয়া ও তোতা মিয়ার মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে আলাপ করা সম্ভব হয়নি।

 

 

 

 

আজকের স্বদেশ/তালুকদার