Logo

May 28, 2020, 9:42 pm

সংবাদ শিরোনাম :
«» ৩১ মে থেকে ব্যাংক লেনদেন চলবে আগের মতো «» করোনা আক্রান্ত কানাইঘাট উপজেলা পরিষদের সিএ বিপ্লব সুস্থতায় দোয়া ও আর্শিবাদ চেয়েছেন «» বাড়ি বাড়ি প্রশ্নপত্র পাঠিয়ে প্রাথমিকের পরীক্ষার পরিকল্পনা «» সিলেট সীমান্ত দিয়ে গেলেন ১২০ ভারতীয়, এলেন ২০ বাংলাদেশি «» কানাইঘাটে এক শিক্ষকের অর্থায়নে অর্ধ কিলোমিটার রাস্তা সংস্কার «» টিকিট বিক্রির ঘোষণা দিল বিমান ইউএস-বাংলা নভোএয়ার «» নানা দেশের নানা পদে মজাদার ‘পঙ্গপাল’ রেসিপি «» লোভাছড়ার পাথর কোয়ারীর লীজের মেয়াদ শেষ: পাথর পরিবহন ও বিপণন বন্ধে ইউএনও’র চিঠি «» কুলাউড়ায় সড়ক দূর্ঘটনায় চালক নিহত «» ২৪ ঘন্টায় করোনা কাড়ল আরও ১৫ প্রাণ, নতুন শনাক্ত দুই হাজার ২৯ জন

কানাইঘাটে ব্যক্তি উদ্যোগ ও সরকারী ভাবে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ অব্যাহত

কানাইঘাট প্রতনিধি::

নোবেল করোনা ভাইরাসের কারনে ঘরবন্দী কানাইঘাটের খেটে খাওয়া মানুষের মাঝে খাদ্য বিতরণ অব্যাহত রয়েছে। আজ বিকেল ২টায় স্থানীয় আন্দুরমুখ বাজারে কঠোর সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে কানাইঘাট লক্ষীপ্রসাদ পূর্ব ইউপির ৯নং ওয়ার্ডের সদস্য উপজেলা আওয়ামীলীগের অর্থ বিষয়ক সম্পাদক তমিজ উদ্দিনের নিজ উদ্যোগে ইউনিয়নের ৫ ও ৭নং ওয়ার্ডের ৪’শ পরিবারের মধ্যে ২০ কেজি করে চাল, নগদ ৩০০ টাকা ও মাক্স বিতরণ করা হয়েছে।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

খাদ্য সামগ্রী বিতরণের উদ্যোক্তা জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মস্তাক আহমদ পলাশের তত্বাবধানে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে কয়েকজনের হাতে খাদ্য সামগ্রী তুলে দেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মুমিন চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সাবেক মেয়র লুৎফুর রহমান, ইউপি সদস্য শামসুদ্দিন সহ স্থানীয় আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ এবং কানাইঘাট প্রেসক্লাবের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। এরপর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মুমিন চৌধুরী কানাইঘাট সাতবাঁক ইউনিয়ন পরিষদের ইউনিয়নের ৪’শ পরিবারের মধ্যে সরকারী বরাদ্দকৃত ১০কেজি করে চাল কয়েকজনের মধ্যে বিতরণ করেন।

 

 

 

 

 

 

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, সাতবাঁক ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান জেলা আ’লীগ নেতা মস্তাক আহমদ পলাশ, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি লুৎফুর রহমান, সাতবাঁক ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মন্নান, কানাইঘাট প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন সহ বিভিন্ন ওয়ার্ডের ইউপি সদস্যবৃন্দ। খাদ্য সামগ্রী বিতরণ কালে উপজেলা চেয়ারম্যান মুমিন চৌধুরী ও মস্তাক আহমদ পলাশ বলেন, আজকের পর থেকে এভাবে আর খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হবে না। সে ধরনের নির্দেশনা প্রশাসন থেকে রয়েছে।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

এখন থেকে জনপ্রতিনিধির মাধ্যমে সরকারী খাদ্য সামগ্রী বাড়িতে বাড়িতে পৌঁছে দেয়া হবে। তারা তমিজ উদ্দিন মেম্বারের মতো যেসব ব্যক্তিবর্গ এই দুর্যোগ মুহুর্তে কানাইঘাটের অসহায় দিনমজুর ঘরবন্দী মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে তাদেরকে লোকজন জমায়েত না করে খাদ্য সামগ্রী বাড়িতে বাড়িতে পৌঁছে দেয়ার আহ্বান জানান এবং সরকারী নির্দেশনা মেনে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলাফেরা এবং সবাইকে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব থেকে রক্ষা পেতে লকডাউন মেনে চলার আহ্বান জানান।

 

 

 

 

 

 

 

 

বিকেল সাড়ে ৪টায় উপজেলা পরিষদ কার্যালয়ে স্থানীয় সাংবাদিকদের নিয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান মুমিন চৌধুরী বলেন, কানাইঘাটে সরকারী খাদ্য সামগ্রী বিতরণ সুষ্ঠু ভাবে করার জন্য তিনি উপজেলার সকল জনপ্রতিনিধিদের প্রতি আহ্বান জানান। এ সময় স্থানীয় সাংবাদিকরা বলেন, উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় মাঠ পর্যায়ে কিছু জনপ্রতিনিধি সরকারী খাদ্য সামগ্রী বিতরণে অনিয়ম করছেন তাদেরকে যারা ভোট দিয়েছে তাদের ত্রাণ দিচ্ছেন, প্রতিটি গ্রামে সুষ্ঠু ভাবে খাদ্য বিতরণ করছেন না এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, খাদ্য সামগ্রী বিতরণে কোন জনপ্রতিনিধি দুর্নীতি, স্বেচ্ছাচারিতা ও স্বজনপ্রীতি, দলপ্রীতির আশ্রয় নিলে তাদের বিরুদ্ধে সরকারী নির্দেশনা অনুযায়ী প্রশাসন কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

 

 

 

আজকের স্বদেশ/তালুকদার