Logo

April 9, 2020, 11:17 pm

সংবাদ শিরোনাম :
«» দোয়ারাবাজারে করোনা উপসর্গ নিয়ে মৃত যুবকের লাশ বহনে খাটিয়া দেয়নি গ্রামবাসী, ছবি ভাইরাল «» সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব ছড়ালে কঠোর ব্যবস্থা «» কানাইঘাটে ছাত্রনেতা হারুণ রশিদের ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে ৩০০পরিবারের মাঝে ত্রাণ বিতরণ «» লকডাউন সফল করতে পেটে ভাত থাকা চাই «» থুতু দিয়ে করোনা ছড়ানোর হুমকি দিয়ে গ্রেফতার দুই «» মসজিদে নয় বাসায় শবে বরাতের আমলের আহ্বান আলেমদের «» করোনা: অন্য এলাকা থেকে এলে থাকতে হবে হোম কোয়ারেন্টিনে…. এসআই আফসার আহমদ «» কালীবাড়ি ও আশেপাশের এলাকার অর্ধশত পরিবারে অধ্যক্ষ শেরগুল আহমদ মানবিক খাদ্য সহযোগিতা প্রদান «» জগন্নাথপুর উপজেলা জনস্বাস্থ্য অধিদপ্তরের উদ্যোগে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে ব্লিচিং পাউডার দেয়া হচ্ছে «» চীনকে ধন্যবাদ জানালেন প্রধানমন্ত্রী

সবাইকে বসন্ত ঋতুর শুভেচ্ছা

 

বসন্ত ষড়ঋতুর শেষ ঋতু। ফাল্গুন এবং চৈত্র মাস মিলে হয় বসন্ত ঋতু। বসন্ত ঋতুর আগমন ঘটে শীত চলে যাবার পর এবং গ্রীষ্ম আসার আগে।

 

 

 

বসন্তকালে বাংলাদেশ ৷ ধরায় বসন্ত এসেছে। আকাশের গায়ে গায়ে পলাশ ছড়িয়েছে তার রাঙা সূর্যের মতো জীবনের রং। কুসুমিত হয়েছে শ্যামল শোভন বনোভূমি। কোকিল গাইছে। আম্রমুকুল তার আকুলিত সৌগন্ধে চঞ্চল করে তুলছে ভ্রমর ভ্রমরীকে। প্রফুল্ল বসন্তকে দেহমনে এখনই তাই বরণ করে নেবার পুলকিত মুহূর্ত।

 

 

 

 

 

হিল্লোলিত হয়ে ওঠা ধরিত্রী পৃথিবী ও সৌরসূর্যের অপরূপ সাম্যাবস্থার সৃষ্টিমুখর হারমোনিতে। বৈজ্ঞানিক পরিভাষায় যে সাম্যাবস্থাকে বলা হয়েছে‘ভারন্যাল ইকুয়িনক্স’। এই অবস্থা অবশ্য পৃথিবীর উত্তর ও দ‌ক্ষিণ গোলার্ধে একই সময়ে উপস্থিত হয় না। উত্তর মেরুতে যখন বসন্তের জয়গান, দ‌ক্ষিণ মেরুর চরাচরজুড়ে তখন হেমন্ত ঋতুর পদচারণ। বসন্তের শুরুতে সময়ের দৈর্ঘ্য দিন-রাত্রিতে সমান সমান। এই ঋতুতে শীতের শীতলতা থাকে না।

 

 

 

 

বসন্তের রং তাই জীবনদায়িনী পৃথিবীর সব শক্তির উৎসদাতা সৌরসূর্যের জীবনদীপের লালচে হলুদ রং। এই রং অনাদিকালের অন্তহীন প্রাণশক্তির অমিত তেজের প্রতীক। নিত্য প্রবাহিত প্রাণপ্রবাহের জীবনমন্থিত নির্যাস। বসন্তকে উদ্দেশ্য করে সৌন্দর্যের সাধক কবি রবীন্দ্রনাথ তাই লিখেছিলেন: হে বসন্ত, হে সুন্দর, ধরণীর ধ্যানভরা ধন,/বৎসরের শেষে/শুধু একবার মর্তের মূর্তি ধর ভুবনমোহন/নববরবেশে।

 

 

বস‌ন্তের ভুবনমোহন নববরবেশ প্রাচীনকালেই চোখে পড়েছিল রূপসচেতন মননশীল মানুষের। একটি অপরূপ সাম্যাবস্থা বিরাজ করলেই যে জীবনমাধুরী রোজ রূপে রসে নতুন জীবনচৈতন্যে ভরে ওঠে, বসন্ত ঋতুর প্রকৃতিতে এই বস্তুনিষ্ঠ সত্যতাকে আবিষ্কার করেছিলেন তাঁরা। বহু দেশের বসন্ত উৎসবে এই মর্মবাণী রূপকে আর প্রতীকে প্রতিফলিত তাই।

 

 

 

 

 

 

পৃথিবীর প্রত্যেক দেশেই বসন্ত ঋতুর উৎসব সৃষ্টির পেছনে এমন সব গল্পকাহিনি রয়ে গেছে, যাদের কাহিনি বিস্তারের ভিন্নতা সত্ত্বেও উপসংহারের ফলাফল তাই একই মর্মবাণী শোনায় আমাদের। সেই মর্মবাণী হলো, সৌন্দর্যসাধনার ভেতর দিয়ে নবযৌবনে, নবায়নে, নবজন্মে, নতুন করে উত্থানে, নতুনভাবের আগমনে কিংবা নতুন রূপের আবর্তনেই জীবনের আবির্ভাব।

 

 

 

আজকের স্বদেশ অনাইল পোর্টালের সকল পাঠক, বিজ্ঞাপন দাতা, সংবাদ দাতা সহ সবাইকে জানাই বসন্ত ঋতুর প্রাণঢালা শুভেচ্ছা।

 

শুভেচ্ছান্তে

গোলাম সারোয়ার

সম্পাদক প্রকাশক

আজকের স্বদেশ ডটকম।

 

 

আজকের স্বদেশ/জুয়েল