Logo

February 23, 2020, 2:43 pm

সংবাদ শিরোনাম :

তাহিরপুরে ৬৯লক্ষ টাকার ব্যয়ে নির্মিত ছিন্নমূল ৪০ পরিবারের আবাসনের কাজ এগিয়ে চলছে

তাহিরপুর(সুনামগঞ্জ)সংবাদদাতা

সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলা সীমান্তে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিবিজরিত ট্যাকেরঘাটে নির্মিত হচ্ছে ছিন্নমূল ৪০পরিবারের আবাসন। এর কাজ পুরোদমে এগিয়ে চলছে। আর কাজের সার্বিক কঠোর নজরদারী রাখছেন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাগন।

স্থানীয় এলাকাবাসী ও সচেতন মহল এই কাজের প্রশংসা করে বলছেন,দ্রুত আর সঠিক ভাবে কাজটি সম্পন্ন করে চিন্নমুল পরিবারের হাতে তুলে দিলে উপকৃত হবে এবং প্রশংশিত হবে বর্তমান সরকারের এই  কার্যক্রম।

জানাযায়,উপজেলায় উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়নের ট্যাকেরঘাটে এই আবাসনে বসতঘর,রান্নঘর,মানসম্মত পায়খানা সবকিছু মিলে এতে ব্যয় হবে ৬০লক্ষ টাকা। তাদের বিনোদনের জন্য থাকবে একটি মালটিপারপাস হলরুম। এতে ব্যয় হবে ৭লক্ষ ৯৩হাজার টাকা। বিশুদ্ধ পানির জন্য বরাদ্ধ রয়েছে এক লক্ষ ২০হাজার টাকা,প্রতি ঘরের মালিকদের কবুলিয়াত দলিল বাবত বরাদ্ধ রয়েছে ২০হাজার টাকা। সবকিছু মিলে এতে ব্যয় হবে ৬৯লক্ষ ৩০হাজার টাকা। ভূমি মন্ত্রনালয়ের গুচ্ছগ্রাম ২য় পর্যায়(সিভিআরপি)প্রকল্পের অধীনে সরকারী পরিপত্রের অনুযায়ী প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটি কর্তৃক সংশ্লিষ্ট উপজেলার উপজেলা নির্বাহী অফিসার সভাপতি সদস্য সচিব হবেন সহকারী কমিশনার(ভূমি),সদস্যরা হলেন,সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের আরডিসি,উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা,সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান ও পূনর্বাসিত পরিবারের একজন প্রতিনিধি।

সূত্রে জানা যায়,ঠিকাদারের মাধ্যমে কাজ হবে না মর্মে ঠিকাদারের মুনাফা,ওভারহেড,ভ্যাট ব্যতীত ইত্যাদি বাবত খরচ বাদ দিয়ে প্রক্কলন মূল্য ধরা হয়েছে। উক্ত কাজের সমুদয় অর্থ এককালীন অগ্রিম উত্তোলন করা যাবে মর্মে চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে। উক্ত আবাসন নির্মাণ কাজের মধ্যে পিলার,ল্যাট্রিন রিং ও স্ল্যাব নির্মাণ কাজ চলমান রয়েছে।

শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান হাজী খসরুল আলম বলেন,প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্যরে লীলাভূমি টেকেরঘাটে গুচ্ছ গ্রামটি নির্মাণ হলে সীমান্ত এলাকার সৌন্দর্য্য বেড়ে যাবে। ভারতের মেঘালয় পাহাড় ঘেষা এগ্রামটি হবে প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্যে ভরপুর। সবচেয়ে বড় কথা এই এলাকার চিন্নমুল ও অসহায় মানুষ গুলো তারা তাদের বসবাসের জন্য বাসস্থান পাবে। যা একটি ভাল উদ্যোগ।

 

তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিজেন ব্যানার্জী বলেন,ভূমি মন্ত্রনালয়ের গুচ্ছগ্রাম ২য় পর্যায়(সিভিআরপি)প্রকল্পের নিয়মানুযায়ী কাজটি নির্মাণ কাজ চলমান রয়েছে। সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের আরডিসি’ও সংযুক্তি রয়েছেন এ কাজে। আশা করি দ্রুত এ কাজটি সম্পন্ন করা হবে। এই কাজ সম্পন্ন হলে যাচাই বাচাই করে চিন্নমূল পরিবারের মাঝে তা বিতরণ করা হবে। এতে করে তারা উপকৃত হবে।

 

 

 

 

আজকের স্বদেশ/এবি