Logo

December 8, 2019, 5:25 am

সংবাদ শিরোনাম :

অবসরের পর রান্নায় সময় দিবেন কোহলি

স্পোর্টস ডেস্ক::

ক্যারিয়ারের সেরা অবস্থানে আছেন বিরাট কোহলি। দু’দিন পরপর রেকর্ড ভাঙাগড়ার খেলায় উন্মত্ত আছেন। সব কিছু ঠিক থাকলে অবসরের প্রহর গুণতে দেরি আছে ‍ভারত অধিনায়কের। তবুও ক্রিকেট ছাড়ার পর কেমন হবে তার জীবন জানালেন বিরাট।

ভারতের এক বেসরকারি চ্যানেলকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে অবসরের পর কী করবেন সে সম্পর্কে জানালেন কোহলি। প্রকাশ করলেন শেফ হওয়ার শখের কথা। তিনি বলেন, ‘ছোটবেলা থেকেই আমি খাদ্যরসিক। প্রচুর জাঙ্ক ফুড খেতাম। তারপর বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে বেড়ানোর সময় ভিন্ন জাতের খাবার দৃষ্টি আকর্ষণ করত। ভালো রান্না চেখে দেখতে আমার দারুণ লাগে।’

দিল্লিতে ‘নুয়েভা’ নামে কোহলির একটি রেস্টুরেন্ট রয়েছে। তবে কী রান্না শিখে নিজের ব্যবসাটা আরো বাড়াতে চাইছেন! কোহলি এ প্রসঙ্গে কিছু স্পষ্ট না করলেও, তেমনটাই আঁচ করছে তার ভক্তরা।

ছোট থেকেই পাঞ্জাবি খাবারের ভীষণ ভক্ত। রাজমা-চাওল, বাটার চিকেন-নান-মশলাদার খাবার পেলেই চেটেপুটে মনের সুখে খেতেন। তবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে যত দিন এগিয়েছে, ততই নিজের স্বাস্থ্যের ব্যাপারে সচেতন হয়েছেন ভারত অধিনায়ক। পেটপুজোয় কাটছাঁট করে ফিটনেস আর ট্রেনিংয়ে মন দিয়েছেন। এখন তো আবার আমিষ খাবার ছেড়ে পুরোপুরি নিরামিষ খাবার খাচ্ছেন।

আপাতত ভারত অধিনায়ক রয়েছেন ছুটির মেজাজে। স্ত্রী আনুশকাকে নিয়ে প্রাকৃতিক সৌন্দর্য উপভোগ করছেন তিনি। ৩০ বছরের জন্মদিনটাও পাহাড়ের কোলে ভুটানেই কাটিয়েছেন। প্রায় দিনই নিত্য নতুন ছবি পোস্ট করছেন ইনস্টাগ্রাম, টুইটারে।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ-ভারত টি-টোয়েন্টি সিরিজে কোহলির পরিবর্তেক দলকে নেতৃত্ব দিয়েছেন রোহিত শর্মা। তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজে ২-১ ব্যবধানে বাংলাদেশকে হারায় টিম ইন্ডিয়া।

 

 

 

আজকের স্বদেশ/এবি