Logo

June 3, 2020, 9:50 am

সংবাদ শিরোনাম :
«» করোনায় টানা দ্বিতীয় দিনে ৩৭ মৃত্যু, শনাক্ত আরও ২৬৯৫ «» লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশিকে হত্যার ‘মূল হোতা’ খালেদ ড্রোন হামলায় নিহত «» সুনামগঞ্জে ১৪ র‍্যাবসহ একদিনে ৩৯ জনের করোনা শনাক্ত «» যুক্তরাষ্ট্রে শহরে শহরে কারফিউ ভেঙে চলছে বিক্ষোভ «» ভূমিকম্পে কাঁপল বাংলাদেশ-ভারত সীমান্ত «» বিকেলে ১১০ কিমি বেগে মুম্বাইয়ে আঘাত হানবে ‘নিসর্গ’ «» কুড়িগ্রামে ভারতীয় হাতির দলের তাণ্ডব «» করোনায় আক্রান্ত মেয়র আরিফের স্ত্রী «» জিয়াউর রহমানের শাহাদাত বার্ষিকীতে যুক্তরাজ্য স্বেচ্ছাসেবক দলের লাইভ ভার্চুয়াল আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত «» হাতজোড় করে ক্ষমা চেয়েও নিজেকে রক্ষা করতে পারলেন না বৃদ্ধ

বিশ্বনাথে জেল হত্যা দিবস উপলক্ষে জয়বাংলা পরিষদের আলোচনা সভা

বিশ্বনাথ (সিলেট) প্রতিনিধি::

বিশ্বনাথ উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মুহিবুর রহমান বলেছেন, স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্বকে বিপন্ন করার পাশাপাশি জাতিকে নেতৃত্বহীন করার লক্ষে ১৯৭৫ সালের ১৫ আগষ্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যার ধারাবাহিকতায় ১৯৭৫ সালের ৩ নভেম্বর স্বাধীনতা বিরোধী চক্র কারাবন্দি অবস্থায় বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ সহচর জাতীয় চার নেতাকে নির্মমভাবে হত্যা করে।

এ ঘৃণ্য হত্যাকান্ডের মাধ্যমে স্বাধীনতার পরাজিত শক্তি, দেশবিরোধী চক্র বাংলার মাটি থেকে আওয়ামী লীগের নাম চিরতরে মুছে ফেলে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধ্বংস এবং বাঙালি জাতিকে নেতৃত্বশূন্য করার অপচেষ্টা চালিয়েছিল।

বৃহস্পতিবার বিকালে উপজেলার চাউলধনী স্কুল এন্ড কলেজের হল রুমে পরিষদ দশপাইকাবাজার শাখা আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। সভায় প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন জয় বাংলা পরিষদ কেন্দ্রীয় সভাপতি সাম্যবাদী কবি সাইদুর রহমান সাঈদ।

তিনি বলেন, জাতীয় চার নেতা সৈয়দ নজরুল ইসলাম, তাজউদ্দীন আহমদ, এম মনসুর আলী ও এ এইচ এম কামরুজ্জামান ছিলেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঘনিষ্ঠ সহচর। ১৯৭৫ সালের ১৫ই আগষ্ট বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের সদস্যদের নির্মমভাবে হত্যার পর এই চার নেতাকে জেলে পাঠানো হয়। কারাগারের মধ্যেই একাত্তরের স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের শত্রুরা সেদিন দেশ মাতৃকার সেরা সন্তান জাতীয় এই চার নেতাকে শুধু গুলি চালিয়েই ক্ষান্ত হয়নি, কাপুরুষের মতো গুলিবিদ্ধ দেহকে বেয়নেট দিয়ে খুঁচিয়ে ক্ষত-বিক্ষত করে।

বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ট সহচর জাতীয় চার নেতার অবদান জাতি চিরদিন শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করবে। জয়বাংলা পরিষদ দশপাইকা বাজার শাখার সভাপতি মো. মঈন উদ্দিনের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, সংগঠনের উপদেষ্ঠা কবির আহমদ, বিশ্বনাথ বন্ধু সভার সহ-সভাপতি কামাল মুন্না, বিশ্বনাথ থিয়েটারের সভাপতি আনহার আলী, সাধারণ সম্পাদক নবীন সোহেল, চাউলধনী স্কুল এন্ড কলেজের সহকারী শিক্ষক শফিক আহমদ পিয়ার,

বঙ্গবন্ধু শিশুকিশোর মেলা বিশ্বনাথ উপজেলা শাখার সাবেক সভাপতি বদরুল ইসলাম মহসিন, সংগঠক সফিক আহমদ পিয়ার। আরও বক্তব্য রাখেন, সংগঠনের সহ-সভাপতি আকবর আলী, সহ-সাধারণ সম্পাদক মো. সিতাব আলী, সাধারণ সম্পাদক মো. আবু সুফিয়ানের সঞ্চালনায় এ সময় উপস্থিত ছিলেন, দশপাইকা আলিম মাদ্রাসার সিনিয়র শিক্ষক আলহাজ্ব মাওলানা আব্দুল খালিক হাজি মজিদ আলী, আওয়ামী লীগ নেতা কবির আহমদ, সংগঠক আকবর আলী।

সংগঠনের সহ-প্রচার সম্পাদক রোমন আহমদ, সদস্য মঈন উদ্দিন, হোসাইন আহমদ, লোকমান আহমদ, রুমেল আহমদ, মুজিবুর রহমান, বদরুল আমিন, সোলেমান আহমদ, রেদোয়ান আহমদ ইমন, রেজাউল করিম, রায়হান উদ্দিনসহ সংগঠনের সদস্য ও এলাকার বিভিন্ন শ্রেণীপেশার নেতৃবৃন্দ।

 

 

আজকের স্বদেশ/তালুকদার