Logo

October 15, 2019, 1:48 am

সংবাদ শিরোনাম :
«» দিরাইয়ে শিশু তুহিন হত্যার ঘটনায় পরিবারের সংশ্লিষ্টতা রয়েছে – সহকারী পুলিশ সুপার «» সাড়ে তিন কোটি টাকার পাথর লুঠের মামলায় আলোচিত ব্যবসায়ী মাতাই জেল হাজতে «» বাঘায় ২ সতীতের ভোটযুদ্ধ «» ‘জিনের’ হাত থেকে উদ্ধার সেই কিশোরী ফিরে গেল পরিবারে «» কানাইঘাট আইন শৃংখলা ও চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা অনুষ্ঠিত «» জগন্নাথপুরে বহুল প্রতিক্ষিত মিরপুর ইউনিয়ন নির্বাচন সম্পন্ন: আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী প্রার্থী শেরীন বিশাল ব্যবধানে জয়ী «» রৌয়াইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এ বৃক্ষ রোপন «» আবরারের হত্যাকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিতের আশ্বাস «» জগন্নাথপুরের মিরপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ২নং ওয়ার্ডে মাহবুব হোসেন বিজয়ী «» ঘুষের টাকাসহ ধরা পড়লেন পাসপোর্ট অফিসের সহায়ক

বিশ্বনাথের পুরানগাওঁ, বিশঘর সড়ক সংস্কারের অভাবে- নাস্তানাবুদ এলাকাবাসী!

বদরুল ইসলাম মহসিন. বিশ্বনাথ::

সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার রামপাশা ইউনিয়নের গাছতলা মোড় থেকে পুরানগাওঁ, বিশঘর গ্রামের কোনপাড়া পর্যন্ত প্রায় দেড় কিলোমিটার সড়কটি এ অঞ্চলের মানুষের যাতায়াতের প্রধান রাস্তা।

দীর্ঘ দেড় যোগ ধরে, দেড় কিলোমিটার সড়কটি সংস্কার না করায় পিচ ঢালাই উঠে বিশাল বিশাল, বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়। দীর্ঘদিন ধরে সড়কটি পূনরায় সংস্কারের দাবি উঠলেও স্থানীয় সংসদ সদস্যরা ঐ রাস্তাটির সংস্কারের কোন আগ্রহ দেখাননি। ফলে জনগুরুত্বপূর্ণ রাস্তাটি দীর্ঘদিন ধরে অবহেলিত রয়েছে।

অবিলম্বে জনগুরুত্বপূর্ণ রাস্তাটি সংস্কার ও পুরানগাওঁ থেকে পূর্ব হয়ে মিরেরচর পর্যন্ত আরো প্রায় দেড় কিলোমিটার কাচা রাস্তা পূর্ণ নির্মানের দাবি স্থানীয় এলাকাবাসীর।

দীর্ঘ এ রাস্তাগুলো, বর্ষায় হাঁটু কাদা, আর খরায় ধুলোর রাজ্যেও সৃষ্টি হয়। চলতি বর্ষা মৌসুমে স্কুলগামী ও কলেজগামী শিক্ষার্থীসহ হাজার হাজার পথচারী চরম দুর্ভোগের মধ্যদিয়ে এই রাস্তায় যাতায়াত করছে।

স্থানীয়রা জানান, ২০০১ সালে গাছতলা মোড় থেকে পুরানগাওঁ খালপার পর্যন্ত ১ কিলোমিটার পাকা করণ করা হয়। এরপর থেকে পুরো এলাকায় কাচা রাস্তা শুরু।

পাকা সড়ক থেকে শুরু হয়ে, সদরের মিরেরচর পর্যন্ত পূর্বের রাস্তাটিরও অবস্থা কাদা আর গর্তে বেহাল। ঐ রাস্তায় বর্ষার পানিতে হাঁটু সমান কাদা হয়। কাদার মধ্যে চলতে গিয়ে স্কুল ও কলেজ পড়–য়া ছাত্রছাত্রীসহ নাস্তানাবুদ হচ্ছেন এলাকাবাসী।

উপজেলা সদরের সঙ্গে অন্যতম মাধ্যম, এই প্রধান দু’মুখই রাস্তা। প্রতিদিন শত’শত মানুষ যাতায়াত করছে ওই সড়ক ও রাস্তা দিয়ে। সবচেয়ে বেশি দুর্ভোগের শিকার স্থানীয় কোমলমতি শিক্ষার্থীরা।

শতবছরের পুরোনো ঐতিহ্যবাহী পুরানগাওঁ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, এবং প্রগতি উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীসহ কলেজ পড়–য়া শিক্ষার্থীরা যাতায়াতে কষ্ট হয় ঐ রাস্তা দিয়ে।

এছাড়াও স্থানীয় বাসিন্দারা অসুস্থ হলে, উপজেলা সদরের হাসপাতালে গাড়ী নিয়ে ঐ রাস্তা দিয়ে যেতেও বিপাকে পড়তে হয়! নিয়মিত ঐ সড়ক বা রাস্তা দিয়ে যাতায়াত করতেও স্থানীয়দের সীমাহীন দুর্ভোগে পড়তে হয়।

স্থানীয় পুরানগাওঁ গ্রামের মুরব্বি জয়নাল আবেদিন কুদ্দুছ বলেন, ভোটের সময় নেতারা প্রতিশ্রুতি দেয় রাস্তা করে দিবো। নির্বাচন পরে আর খবর থাকে না।

এলাকাবাসীর পক্ষে কয়েকবার সাবেক সংসদ সদস্য ইয়াহহিয়া চৌধুরী এহিয়ার কাছে মৌখিক ভাবে সড়কটি সংস্কারের জন্য আবেদন করা হলে, তিনি আশ্বাস দিলেও কাজের কাজ হয়নি। রাস্থাটি সংস্কার অতি জরুরি। রাস্তাটি সংস্কার হলে স্থানীয় এলাকার মানুষজন দুর্ভোগ থেকে মুক্তি পাবে।

এ বিষয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য শামীম আহমদ (মেম্বার) বলেন, জনগুরুত্বপূর্ণ রাস্তাটি সংস্কার করা অতি জরুরী, ইউপি সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পরই উদ্যোগ গ্রহন করি সড়কটি সংস্কারের। তিনি আশাপ্রকাশ করে বলেন, শীঘ্রই এ রাস্তা ট্রেন্ডার প্রকৃয়ায় এসে সড়কটির সংস্কার কাজ শুরু হবে।

জানতে চাইলে বিশ্বনাথ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এসএম নুনু মিয়া বলেন স্থানীয় কয়েকটি রাস্তার প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। আশাকরি আগামি কিছুদিনের মধ্যে ট্রেন্ডার প্রকৃয়ায় নেওয়া হবে।

 

 

 

আজকের স্বদেশ/তালুকদার