Logo

October 15, 2019, 1:51 am

সংবাদ শিরোনাম :
«» দিরাইয়ে শিশু তুহিন হত্যার ঘটনায় পরিবারের সংশ্লিষ্টতা রয়েছে – সহকারী পুলিশ সুপার «» সাড়ে তিন কোটি টাকার পাথর লুঠের মামলায় আলোচিত ব্যবসায়ী মাতাই জেল হাজতে «» বাঘায় ২ সতীতের ভোটযুদ্ধ «» ‘জিনের’ হাত থেকে উদ্ধার সেই কিশোরী ফিরে গেল পরিবারে «» কানাইঘাট আইন শৃংখলা ও চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা অনুষ্ঠিত «» জগন্নাথপুরে বহুল প্রতিক্ষিত মিরপুর ইউনিয়ন নির্বাচন সম্পন্ন: আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী প্রার্থী শেরীন বিশাল ব্যবধানে জয়ী «» রৌয়াইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এ বৃক্ষ রোপন «» আবরারের হত্যাকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিতের আশ্বাস «» জগন্নাথপুরের মিরপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ২নং ওয়ার্ডে মাহবুব হোসেন বিজয়ী «» ঘুষের টাকাসহ ধরা পড়লেন পাসপোর্ট অফিসের সহায়ক

জগন্নাথপুরে অবশেষে ১৮ দিন পর ৭ম শ্রেনীর ছাত্রী উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক::

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার পাইলগাঁও ইউনিয়নের অনঙ্গ মোহন সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় এন্ড জুনিয়র হাইস্কুলের ৭ম শ্রেনীর ছাত্রী অবশেষে উদ্ধার হয়েছে।

জগন্নাথপুর থানার পুলিশ সূত্রে জানা যায়, সহকারী পুলিশ সুপার জগন্নাথপুর সার্কেল মোঃ মাহমুদুল হাসান চৌধুরী  ও জগন্নাথপুর থানার অফিসার ইনচার্জ ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী এবং পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) নব গোপাল দাশের বিভিন্ন  দিক নির্দেশনা এবং তথ্য প্রযুক্তিগত সহায়তার মাধ্যমে মামলার তদন্তকারী অফিসার  এসআই মোঃ কবির উদ্দিন ইন্স: তদন্ত নব গোপাল দাশ এর নেতৃত্তে জগন্নাথপুর থানার মামলা নং-১৯,তারিখ ২৪-০৬-১৯ ইং,

ধারা-নারী ও শিশু নিঃ দমন আইন ২০০০(সংশোধীত/০৩) এর ৭/৩০ এর পলাতক ১নং আসামী জমির আলী (২৫)কে গ্রেফতার সহ ক্ষতিগ্রস্ত মেয়ে জবা রানী বিশ্বাস (১৬) কে উদ্ধারের জন্য আসামী সহ তাদের আত্নীয় স্বজনদের বাড়ী ঘর সহ চট্রগ্রামের বিভিন্ন  স্থানে পুলিশী ব্যাপক অভিযান পরিচালনা করা হয়।

 

এরই ধারাবাহিকতায় অত্র মামলার ক্ষতিগ্রস্ত মেয়েকে অদ্য আজ উদ্ধার করা হয়। ক্ষতিগ্রস্ত মেয়ে পাইলগাঁও অনঙ্গ মোহন সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় এন্ড জুনিয়র হাইস্কুলের ৭ম শ্রেনীর ছাত্রী ।

 

ক্ষতিগ্রস্ত মেয়ে একজন অপ্রাপ্ত বয়স্ক মেয়ে এবং স্কুল ছাত্রী বিধায়ক্ষতিগ্রস্ত মেয়ের প্রকৃত বয়স নির্ধারন সহ আসামী কর্তৃক ধর্ষিত হয়েছে কি-না? সে বিষয়ে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য ভিকটিমকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করা হইয়াছে।

ডাক্তারী পরীক্ষা শেষে ২২ ধারা মতে জবানবন্দি রেকর্ড এর জন্য  পরবর্তীতে ক্ষতিগ্রস্ত মেয়েকে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরন করা  হইবে। পলাতক আসামী জমির আলী সহ অপরাপর আসামীদের গ্রেফতারের জন্য জোর চেষ্টা অব্যাহত আছে।

 

 

 

আজকের স্বদেশ/তালুকদার