Logo

October 15, 2019, 1:57 am

সংবাদ শিরোনাম :
«» দিরাইয়ে শিশু তুহিন হত্যার ঘটনায় পরিবারের সংশ্লিষ্টতা রয়েছে – সহকারী পুলিশ সুপার «» সাড়ে তিন কোটি টাকার পাথর লুঠের মামলায় আলোচিত ব্যবসায়ী মাতাই জেল হাজতে «» বাঘায় ২ সতীতের ভোটযুদ্ধ «» ‘জিনের’ হাত থেকে উদ্ধার সেই কিশোরী ফিরে গেল পরিবারে «» কানাইঘাট আইন শৃংখলা ও চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা অনুষ্ঠিত «» জগন্নাথপুরে বহুল প্রতিক্ষিত মিরপুর ইউনিয়ন নির্বাচন সম্পন্ন: আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী প্রার্থী শেরীন বিশাল ব্যবধানে জয়ী «» রৌয়াইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এ বৃক্ষ রোপন «» আবরারের হত্যাকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিতের আশ্বাস «» জগন্নাথপুরের মিরপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ২নং ওয়ার্ডে মাহবুব হোসেন বিজয়ী «» ঘুষের টাকাসহ ধরা পড়লেন পাসপোর্ট অফিসের সহায়ক

গ্যাসের দাম বাড়ানোর বিপক্ষে ১৪ দলও

আজকের স্বদেশ ডেস্ক:

গ্যাসের দাম বাড়ানোর প্রতিবাদে বিরোধী দলগুলো যখন সমালোচনায় মুখর তখন এই দাম বৃদ্ধির সমালোচনা করেছে খোদ সরকারের সহযোগী ১৪ দলীয় জোটও। গ্যাসের দাম বাড়ানোর বিষয়টি পুনরায় বিবেচনা করতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন জোটের মুখপাত্র এবং আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মোহাম্মদ নাসিম।

মঙ্গলবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে কেন্দ্রীয় ১৪ দলের বৈঠক শেষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে নাসিম বলেন, ‘আমি সরকারকে অনুরোধ করবো গ্যাসের দাম বৃদ্ধির বিষয় বিবেচনা করে দেখুন যদি সহনীয় পর্যায়ে রাখা যায় সেই ব্যবস্থা গ্রহণ করুন। জনগণের যাতে দুঃখ-দুর্দশা লাঘব হয়।’

সাবেক এই মন্ত্রী বলেন, ‘এই সরকার জনবান্ধব সরকার। আজকে অনেকের মনে প্রশ্ন এসেছে যে, বাজেট পাস হয়ে গেল তারপরও কেন আকস্মিকভাবে গ্যাসের দাম বাড়ানো হলো। এই সুযোগে একটি অশুভ শক্তি ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের জন্য মাঠে নেমে গেছে।’
বিএনপির সমালোচনা করে তিনি বলেন, ‘যাদের আমলে বারবার গ্যাসের দাম, বিদ্যুতের দাম বাড়ানো হয়েছিল। যারা জনগণের কথা চিন্তা না করে বিদেশে গ্যাস বিক্রি করতে চেয়েছিল। সেই বিএনপি’র মুখে এসব কথা মানায় না।’

নারী নির্যাতন, শিশু নির্যাতনের মতো সামাজিক অপরাধ দমনে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পদক্ষেপের প্রশংসা করে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ‘এই ধরনের অপরাধ দমনে সরকার জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছে। দুষ্কৃতিকারী সে যেই হোক সরকার তাকে ছাড় দেয়নি।’
বিএনপির শাসনামলের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, ‘ওই সময় অপরাধীরা ক্ষমতাসীন দলের প্রশ্রয় পেয়েছিল। এই রকম ঘটনা অহরহ ঘটেছে। কিন্তু কোন বিচার হয়নি। মানুষ এসব কথা ভুলে যায়নি। বিএনপির মুখে আইনের শাসনের কথা মানায় না। কারণ তারাই আইন ভূলুণ্ঠিত করেছে। তারা প্রকাশ্য দিবালোকে খুনিদের আশ্রয় প্রশ্রয় দিয়েছে।’

কেন্দ্রীয় ১৪ দলের মুখপাত্র জানান, সন্ত্রাস, মাদক এবং বিএনপি জামায়াত জোটের চক্রান্তের বিরুদ্ধে আগামী ১৯ জুলাই দিনাজপুর এবং ২০ জুলাই কুড়িগ্রামে জনসভা করা হবে।

এর আগে অনুষ্ঠিত বৈঠকে সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়ার সভাপতিত্বে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন এমপি, জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু এমপি, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দি, গণতন্ত্রী পার্টির নেতা ডা. শাহাদাত হোসেন, কমিউনিস্ট কেন্দ্রের নেতা ডা. ওয়াজেদুল ইসলাম খান, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

 

 

 

আজকের স্বদেশ/এবি