Logo

September 22, 2019, 6:28 am

সংবাদ শিরোনাম :

ফেসবুকে ভাতিজির সঙ্গে বিয়ের ভুয়া কাবিন নামার পোস্ট দিয়ে কারাগারে চাচা

স্বদেশ ডেস্ক::

ফেসবুকে ভাতিজির সঙ্গে নিজের ভুয়া বিয়ের গুজব ছড়ানোর অপরাধে একরামুল হক (২২) নামে এক যুবককে ৬ মাসের কারাদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। সাজাপ্রাপ্ত একরামুল নীলফামারীর জলঢাকায় পৌর এলাকার ৩নং ওয়ার্ডের চৌধুরি পাড়া এলাকার বাসিন্দা সাইদুল ইসলামের ছেলে।

 

শনিবার (১৮ মে) বিকেলে ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করা হলে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, সুজাউদ্দৌলাকে ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন। এসময় অভিযোগকারী হাফিজুর রহমান ও তার মেয়ে হাফিজা আক্তার দুলালী উপস্থিত ছিলেন।

 

অভিযোগে জানা যায়, হাফিজা সদ্য এসএসসি পরীক্ষায় পাশ করেছে। স্কুলে যাওয়া আসার পথে একরামুল প্রায় সময় তাকে উত্ত্যক্ত করতো। ওই যুবক তার মেয়েকে পথরোধ করে নানা অঙ্গভঙ্গি দেখিয়ে অশ্লীল কথাবার্তা বলতো। এক পর্যায়ে সে নিজ ফেইসবুক অ্যাকাউন্টে তার মেয়ের নাম জড়িয়ে ভুয়া কাবিননামা বানিয়ে বিয়ে হয়েছে বলে প্রচারণা চালাতে থাকে। এ ব্যাপারে, মেয়ের বাবা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে লিখিতভাবে অভিযোগ করেন।

ফেইসবুক আইডিতে মিথ্যা কাবিন নামার গুজব ছড়ানোর অভিযোগে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে বিকালে ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সুজাউদ্দৌলা একরামুলকে ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন।

পুলিশ জানায়, রবিবার (১৯ মে) সকালে আদালতের মাধ্যমে তাকে জেলা কারাগারে পাঠানো হবে।

 

 

 

 

 

আজকের স্বদেশ/জুয়েল