May 24, 2019, 9:41 am

যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে হত্যা, স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

আজকের স্বদেশ ডেস্ক::

ঝিনাইদহের হরিনাকুণ্ডু উপজেলায় স্ত্রীকে হত্যার দায়ে সুরুজ আলী (৪২) নামে এক ব্যক্তির মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টার দিকে ঝিনাইদহের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক চাঁদ মোহাম্মদ আব্দুল আলিম আল রাজি এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত সুরুজ আলী হরিনাকুণ্ডু উপজেলার রঘুনাথপুর গ্রামের বরকত আলীর ছেলে।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০০৩ সালের ২৯ ডিসেম্বর যৌতুকের দাবিতে স্ত্রী চম্পা খাতুনকে হত্যার পর আত্মহত্যা বলে চালানোর চেষ্টা করেন স্বামী সুরুজ ও তার পরিবার।

পরে পুলিশ চম্পার মরদেহ উদ্ধার করে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতাল মর্গে ময়নাতদন্ত করায়। সেসময় হরিনাকুণ্ডু থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়।

পরবর্তীতে ২০০৪ সালে ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পাওয়ার পর নির্যাতনের পর হত্যা প্রমাণিত হয়। এ ঘটনায় ২০০৪ সালের ২১ মার্চ হরিনাকুণ্ডু থানায় চারজনকে আসামি করে চম্পার ভাই ইদ্রিস আলী একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

 

দীর্ঘ তদন্ত ও শুনানি শেষে ১নং আসামি সুরুজ আলী দোষী প্রমাণিত হওয়ায় আদালত তাকে মৃত্যুদণ্ড দেন। বাকি তিনজন আসামির বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাদেরকে এই মামলা হতে খালাস দিয়েছেন আদালত।

 

 

 

আজকের স্বদেশ/জুয়েল

 

More News Of This Category