Logo

February 27, 2020, 1:34 am

সংবাদ শিরোনাম :
«» পাপিয়ার অবৈধ সম্পদের খোঁজ নিচ্ছে দুদক «» দেশে প্রথমবারের মতো পুড়ে যাওয়া ইঞ্জিন সচল, বাঁচল ৩০ কোটি টাকা «» কানাইঘাটে রাস্তা কেটে দেওয়ায় বিপাকে কোমলমতি শিক্ষার্থীরা «» আমরা সত্যিকার অর্থেই জনগণের পুলিশ হতে চাই: আইজিপি «» জগন্নাথপুরে আরাফাত রহমান কোকো গোল্ড কাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের ২য় রাউন্ড সম্পন্ন «» জগন্নাথপুরে শিক্ষার্থীদের মধ্যে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ «» মৌলভীবাজারে পৃথক অভিযানে ৪ মাদক ব্যবসায়ী আটক «» বিশ্ব মানবতার কল্যাণে মুসলিম জাতির তাকওয়া অর্জনই ইহ-পরকালীন শান্তি ও মুক্তির একমাত্র পথ ——–আল্লামা হাসান জামিল, ঢাকা «» কবর জিয়ারতে বাধা ও হামলার প্রতিবাদে মৌলভীবাজার জেলা ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত «» নবীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের বর্ধিত সভা

রাজনীতি থেকে বিদায় নিচ্ছেন সাবিনা আক্তার তুহিন?

আজকের স্বদেশ ডেস্ক::

রাজনীতি থেকে বিদায় নিচ্ছেন দশম জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য ও ঢাকা মহানগর উত্তর যুব মহিলা লীগের সভাপতি সাবিনা আক্তার তুহিন।

নিজের ফেইসবুক পেইজে একটি আবেগঘন স্ট্যাটাসের মাধ্যমে এমনটাই জানান দিয়েছেন মিরপুরের রাজনৈতিক মাঠের এই অগ্নিকন্যা।

তার আক্ষেপ ও আবেগঘন এই স্ট্যাটাসকে ঘিরে ব্যাপক আলোচনার ঝড় তুলেছে গোটা মিরপুরের রাজনৈতিক মহলে। সাবিনা আক্তার তুহিনের স্ট্যাটাসটি আজকের স্বদেশ পাঠকদের জন্যে হুবুহ তুলে ধরা হলো।

তার ফেসবুক পেইজে তিনি লিখেছেন, রাজনীতি থেকে মনে হয় বিদায় নিতে হবে, নায়ক নায়িকাদের এত ভীড়ে আমাদের আর দেখা পাওয়া কঠিন। আন্দোলন সংগ্রামের রোদে পোড়া শরীর এখন কিছুটা ভাল দেখতে হলেও নায়িকাদের রুপে বিলীন। ক্ষমতায় থাকতে এত লোক বিরোধী দলে থাকতে তো দেখি নাই।

মেয়েদের রাজনীতিতে কেবলই জ্বালা নায়িকা জ্বালা আবার মেয়ে হওয়ার জন্য পুরুষের চাইতে বেশি কাজ করলেও সাধারন আসনে নমিনেশন দেয়া যাবে না। সরকারী দলের চাইতে তো বিরোধী দলেই ভাল ছিলাম। নিজেদের দল নিজেদের ছিল। এখন মহা বিপদ। আমাদের দল ছিনতাই করছে নায়িকা হাইব্রীড বিএনপি থেকে আমদানী কারীরা।

এদিকে তার এই আবেগঘন স্ট্যাটাসকে ঘিরে মিরপুরের রাজনৈতিক নেতাকর্মী ও তার সমর্থকদের মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়ার জন্ম দিয়েছে। আসলেই কি তিনি রাজনীতি থেকে বিদায় নিচ্ছেন?

সাবিনা আক্তার তুহিন দীর্ঘদিন আওয়ামীলীগের রাজনীতির সাথে যুক্ত থেকে দলের দুঃসময়ে কঠোর ভুমিকা পালন করেছেন রাজপথে। বিএনপি জামায়াতের শাসনামলে স্বেরাচার বিরোধী নানা আন্দোলনে অংশ নিয়ে কঠোর ভুমিকার রাখার পাশাপাশি কারাবাসের শিকার হয়েছেন বহুবার।

নিজের শিশুকে বুকের দুধ খাওনোর সময় গ্রেফতার হয়ে শিশুকে দুধ না খাইয়েই জেলে যেতে হয়েছে তাকে। এই গুলি বেশিদিন আগের কথাও নয়। বিপুল কর্মী সমর্থকের সমর্থন ও প্রদানমন্ত্রীর আশির্বাদপুষ্ট হয়ে সংরক্ষিত মহিলা আসনের সাংসদ নিযুক্ত হন।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ঢাকা-১৪ আসন থেকে মনোয়ন দাবি করেও বঞ্চিত হন তিনি। এখন কেন হঠাৎ রাজনীতি থেকে বিদায় নিচ্ছেন তিনি? এমন প্রশ্ন মিরপুরের গোটা রাজনৈতিক মাঠে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে।

জানতে চাইলে সাবিনা আক্তার তুহিন মুঠোফোনে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, আমরা যারা দীর্ঘদিন রাজনীতির মাঠে সক্রিয় ছিলাম বা বুদ্ধিজীবিদের এই অবস্থানে আসাটা আশানুরূপ।

কিন্ত এত নায়ক নায়িকাদের আসতে চাওয়াটা আসলেই দুঃখজনক। রাজনীতির মাঠ কোন অভিনয়ের মঞ্চ না। এটা বাস্তব ভিত্তিক সংগ্রামের জায়গা। নায়ক নায়িকাদের শুধুমাত্র অভিনয়ের মঞ্চেই মানায়। কিন্তু রাজনীতির মাঠে নয়।

 

 

আজকের স্বদেশ/জুয়েল