1. abubakarpressjp@gmail.com : Md Abu bakar : Md Abubakar bakar
  2. sharuarpress@gmail.com : admin520 : Md Gulam sharuar
  3. : alamin328 :
  4. jewela471@gmail.com : Jewel Ahmed : Jewel Ahmed
  5. ajkershodesh@gmail.com : Mdg sharuar : Mdg sharuar
মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ১১:২৩ অপরাহ্ন
হেড লাইন
জগন্নাথপুরে ভারী যানবাহন চলাচলে বেহাল জনগুরুত্বপূর্ণ রাস্তা উপজেলা পরিষদ নির্বাচন-২০২৪ প্রতীক পেলেন শান্তিগঞ্জ উপজেলার প্রার্থীরা ওয়ার্ল্ড ভিশননের বাষির্ক কার্যক্রম মূল্যায়ন ও উন্নয়ন পরিকল্পনা জগন্নাথপুরে সামাজিক ও মানবতার সংগঠন “রানীগঞ্জ উন্নয়ন সংস্থা” এর শুভ উদ্বোধন চতুলবাসীর ভালোবাসার প্রতিদান দিতে চাই চেয়ারম্যান প্রার্থী শামসুজ্জামান বাহার বাংলাদেশ পরিবেশ পরিক্রমা মানবাধিকার সাংবাদিক সোসাইটির সিলেট বিভাগীয় কমিটির পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত সাতগাঁও বাজারের নির্বাচনী সভায় দিলীপ বর্মন : সন্ত্রাসমুক্ত সম্প্রীতিময় বিশ্বম্ভরপুর গঠনে ঘোড়া মার্কায় ভোট দিন হীড বাংলাদেশের আয়োজনে যক্ষা রোগ সম্পর্কে সচেতনতায় নবীগঞ্জে বাস-সিএনজি সংঘর্ষে জগন্নাথপুরের মহিলা নিহত কমলগঞ্জ উপজেলায় এই প্রথম নারী চেয়ারম্যান প্রার্থী গীতা রানীকানু

মৌলভীবাজারে বন্যার্ত মানুষের পাশে রাজনৈতিক নেতা,জনপ্রতিনিধি ও সমাজকর্মীরা

  • Update Time : বুধবার, ২০ জুন, ২০১৮
  • ৫২৪ শেয়ার হয়েছে

শেখ সাহেদ আহমদঃ
উজান থেকে নেমে আসা পানি এবং টানা চারদিনের বৃষ্টিতে মৌলভীবাজারের কুশিয়ারা নদী, মনু নদী,ও ধলাই নদের বাধ ভেঙ্গে মৌলভীবাজার শহর ও উপজেলার কয়েকটি ইউনিয়ন প্লাবিত হয়।

মৌলভীবাজার জেলার শেরপুর কুশিয়ারা নদী,মনু নদী ও ধলাই নদের পানিতে প্লাবিত হয়ে পানি বন্দী হয়ে পড়েছে ৫টি ইউনিয়নের কয়েক হাজার মানুষ ৷ সারাদেশের মানুষ যখন ঈদের আনন্দে মশগুল তখন মৌলভীবাজারের বিভিন্ন এলাকার মানুষ জীবন বাচানোর জন্য উজান থেকে নেমে আসা ঘোলা পানির সাথে যুদ্ধ করতে ব্যস্ত ৷

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় ,শেরপুর এলাকায় কুশিয়ারা নদী,মনু নদীর পানি বিপদ সীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়ে বন্যা নিয়ন্ত্রন বাধের ভেতরে থাকা মৌলভীবাজার শহর, শেরপুরের আলীপুর গ্রাম প্লাবিত করেছে ৷ তাছাড়া ও দাউদপুরে বন্যা নিয়ন্ত্রন বাধ ভেঙে পানি প্রবেশ  করে দাউদপুর ,ব্রাক্ষনগ্রাম ,হামরকোনা সহ কয়েকটি গ্রাম প্লাবিত করেছে এবং পানি প্রবেশ করছে কয়েকটি গ্রাম ৷ এভাবে পানি বাড়তে থাকলে প্লাবিত হবে মৌলভীবাজার ও হবিগন্জের জেলার আইনপুর ,বাগারাই ,পিটুয়া ,গ্রাম শেরপুর সহ অর্ধশতাধিক গ্রাম ৷

এদিকে শেরপুর বাজারে পানি প্রবেশ করে কয়েকটি মার্কেট, টিসিবির খাদ্য গুদাম সহ অনেক এলাকা প্লাবিত করেছে ৷ ফলে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে ব্যবসায়ী ও সরকারী গুদামজাত মালামাল ৷ কুশিয়ারার পানি বৃদ্ধি পাবার প্রাথমিক অবস্থায় বালির বস্তা দিয়ে পানি নিয়ন্ত্রনের চেষ্টা করা হলেও তা ব্যর্থ হয় ৷

শেরপুর লঞ্চঘাট এলাকা দিয়ে বালির বস্তা ফেলে পানি নিয়ন্ত্রন  করা হলেও যেকোন মুহুর্তে তা ভেঙে প্লাবিত হবার আশংকা রয়েছে শেরপুর,পারকুল ও নবীগন্জ উপজেলাধীন পাহাড়পুর ,দুর্গাপুর সহ অর্ধশতাধিক গ্রাম ৷ ইতিমধ্যে প্লাবিত হয়ে গেছে লামা তাজপুর ও নতুন বস্তি এলাকা।

মৌলভীবাজার সদর উপজেলার প্রায় পাঁচটি ইউনিয়নের মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। এসব এলাকায় ৪ থেকে ৫ ফুট উপর পর্যন্ত পানি রয়েছে। নাজুক অবস্থায় পড়েছেন শিশু ও বৃদ্ধরা।

মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে মৌলভীবাজার সরকারি কলেজ, মৌলভীবাজার সরকারি মহিলা কলেজ, প্রাইমারি টিচার্স ট্রেনিং ইনস্টিটিউট, পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট, টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজ এবং শেরপুরের আজাদ বখত উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড কলেজ এই ছয়টি  স্থানকে আশ্রয় কেন্দ্র হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে।

জেলা প্রশাসক তোফায়েল ইসলাম জানিয়েছেন, ছয়টি  আশ্রয়কেন্দ্র চালু করা হয়েছে। সেখানে মানুষ আশ্রয় নিচ্ছেন। উপজেলাগুলোতে ত্রাণ বিতরণ করা হচ্ছে।

মৌলভীবাজার জেলাব্যাপী গত ৪ দিনে ৫ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। এখন পর্যন্ত নিখোঁজ আছেন আরো ৩ জন। পানির স্রোতে পড়ে এদের মৃত্যু হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে প্রশাসন। জেলাব্যাপী সেনাবাহিনী বন্যার্তদের সহযোগিতায় আছে বলে জানিয়েছেন।

গত কয়েক দিনে বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতা,জনপ্রতিনিধি ও সমাজকর্মীরা বন্যার্ত মানুষের পাশে দাড়ান এবং ত্রান বিতরন করেন।
গত সোমবার মৌলভীবাজার সদর উপজেলার চেয়ারম্যান ও জেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক ভিপি মিজানুর রহমান মিজান বিকালে সদর উপজেলার শেরপুর বাজারের বন্যায় কবলিত বিভিন্ন এলাকার  মানুষের খোজ খবর নেন।

সদর উপজেলার খলিলপুর ইউনিয়নের হামরকোনা,দাউদপুর,ব্রাম্মনগ্রাম,আজাদ বখত উচ্চ বিদ্যালয়ের আশ্রয় কেন্দ্র পরিদর্শন করেন।
এসময় উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট সমাজ সেবক আবু মিয়া,ছুরুক আলম,ইউনিয়ন বিএনপির সাধারন সম্পাদক আবুল হোসেন,সাবেক মেম্বার আরশ উদ্দিন,সমাজ সেবক নাসির উদ্দিন,জেলা স্বেচ্ছাসেবক নেতা আমিনুল ইসলাম শাহেদ,জেলা স্বেচ্ছাসেবক নেতা গাজী আবেদ,যুবদল নেতা রুহেল মিয়া,জেলা ছাত্রদল নেতা সুমন মিয়া,মৌলভীবাজার জেলা ছাত্রদলের যুগ্ন সম্পাদক শাহ আলম,সদর উপজেলা ছাত্রদলের যুগ্ন আহবায়ক শেখ সাহেদ মিয়া,রিপন মিয়া,মাজহারুল ইসলাম রকি,ছাত্র নেতা সুমন মিয়া,সেজিম বখস।

গতকাল মঙ্গলবার মৌলভীবাজারের শেরপুরে বন্যার্ত মানুষের পাশে ত্রান বিতরন করেন সমাজকল্যাণ মন্ত্রী বন্যায় খলিলপুর ইউনিয়নের ক্ষতিগ্রস্ত জনসাধারনের সাহায্যে ত্রান বিতরন অনুষ্টিত হয়। শেরপুর বাজারে আজাদ বখত উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড কলেজে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত জনসাধারনের আশ্রয় কেন্দ্র পরিদর্শন করেন।

পরিদর্শন কালে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সরকারের সমাজকল্যাণ মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন,মৌলভীবাজার ও রাজনগর আসনের সাংসদ সৈয়দা সায়রা মহসিন,মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসক তোফায়েল আহমদ,জেলা আওয়ামীলীগ এর যুগ্ন সম্পাদক সৈয়দ নওশের আলী খোকন,খলিলপুর ইউনিয়ন এর চেয়ারম্যান অরবিন্দ পোদ্দার বাচ্চু,খলিলপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ এর সাধারন সম্পাদক আব্দুল হাকিম,যুগ্ন সম্পাদক মনফর আলী,প্রচার সম্পাদক আব্দুল জলিল প্রমুখ।

এ সময় সমাজ কল্যান মন্ত্রী বলেন মৌলভীবাজারে বন্যা কবলিত মানুষের জন্য ত্রাণের কোনো অভাব নেই। দুর্ভোগ শেষ না হওয়া পর্যন্ত ত্রাণ দেয়া অব্যাহত থাকবে। শেখ হাসিনার সরকারের আমলে কেউ না খেয়ে থাকবে না বলে জানিয়েছেন সমাজকল্যাণ মন্ত্রী।

গতকাল মঙ্গলবার মনুমূখ বাজারে ত্রান বিতরন করেন মৌলভীবাজার সদর উপজেলা চেয়ারম্যান ভিপি মিজান বন্যা কবলিত মৌলভীবাজার সদর উপজেলার ২নং মনুমূখ ইউনিয়নের মনুমূখ বাজার শেওইজুরি এলাকার লোকজনের মাঝে ত্রান বিতরন করা হয়।

মঙ্গলবার বিকেলে মনুমূখ বাজারে ত্রান বিতরন করেন সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান মিজান,এ সময় উপস্থিত ছিলেন ২নং মনুমূখ ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আব্দুল হক শেফুল,ইউ/পি সদস্য মহসিন মিয়া,আমিরুল ইসলাম সাহেদ,মোঃ শাহ আলম,রিপন মিয়া,ইলিয়াছ কবির শাহিন,শেখ সাহেদ,কয়েছ মিয়া,মোঃ শেজিম প্রমূখ।

মৌলভীবাজার সদর উপজেলার শেরপুরের বিভিন্ন এলাকায় বন্যার্ত মানুষের জন্য শুকনো খাবার বিতরন করে অত্র এলাকার যুব সমাজ
জানা যায়, শেরপুর, ব্রাম্মণগ্রাম ও হামরকোনার   ভয়াবহ  বন্যার্ত  অসহায় মানুষের মাঝে ত্রান হিসেবে শুকনো খাবার বিতরণ করা হয়।
মৌলভীবাজার জেলা  ছাত্রলীগের সহসভাপতি সুরঞ্জন সূত্রধর এর নিজ উদ্যোগে এলাকার যুব সমাজকে নিয়ে ত্রান বিতরন করেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন শেরপুর বাজারের বিশিষ্ট সমাজ সেবক শেরপুর সমাজ কল্যাণ সংস্থার সহসভাপতি ও  মৌলভী বাজার সামাজিক সংগঠন ” তারণ্য ” ও মৌলভী বাজার যুব সমাজ কল্যাণ   এর অন্যতম সদস্য শিক্ষানবিশ এডভোকেট মোঃ শফিকুর রহমান, আজাদ বখত উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের প্রভাষক আলমগীর হোসেন,  তরুণ সমাজ সেবক আবু তাহের,  মুদ্দত আহমদ মোহন, উজ্জল আহমদ,  রনি,  শিষ, রাজন,   সুক্তার, কুদরত  জায়েদ আহমেদ,  রুহেল আহমদ, প্রমুখ।

নিরুপায় পানি বন্দী মানুষ আশ্রয় নিয়েছে সিলেট-মৌলভীবাজার আন্তঃমহাসড়কে ও  দেখা গেছে মৌলভীবাজার-সিলেট আন্তঃমহাসড়ক ,দাউদপুর ও হামোরকোনা রাস্তায় পঞ্চাশটির ও অধিক পরিবার।

এ দিকে দাউদপুর ,হামোরকোনা এলাকায় প্রতি বছর বন্যাবস্থা বিরাজ করলেও দীর্ঘস্বায়ী কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়না বলে অভিযোগ এলাকাবাসীর ৷ প্রত্যেক বছর বর্ষা মৌসুমে বালির বস্তা ফেলা হয় আর জনপ্রতিনিধিগন পরিদর্শন করেন কিন্তু বর্ষাকাল শেষ হলে কারো টিকিটার ও খোজ মেলে না বলে জানান দাউদপুর ও হামোরকোনা গ্রামের সাধারন মানুষ ৷

আজকের স্বদেশ/জুয়েল

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2024
Design and developed By: Syl Service BD