1. abubakarpressjp@gmail.com : Md Abu bakar : Md Abubakar bakar
  2. sharuarpress@gmail.com : admin520 : Md Gulam sharuar
  3. : alamin328 :
  4. jewela471@gmail.com : Jewel Ahmed : Jewel Ahmed
  5. ajkershodesh@gmail.com : Mdg sharuar : Mdg sharuar
শনিবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ০৪:৪৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
যে কারনে দেশের জনগণ আবারো দেশের সফল প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাকে ক্ষমতায় দেখতে চায়— নবীগঞ্জে এড.মুজিবুর রহমান কাজল জাহাঙ্গীরনগর ও সুরমা ইউনিয়নে রাস্তা নির্মাণ কাজের ভিত্তি প্রস্থর করলেন পীর মিসবাহ্ এমপি জগন্নাথপুরে শনিবার বিদ্যুৎ থাকবে না সকাল ৭টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত পরাজয়ের ভয়ে নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ সরকারের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর করতে সংবিধানের দোহাই দিচ্ছে————প্রিন্সিপাল মাওলানা মজদুদ্দিন আহমদ জগন্নাথপুরে বিশ্ব পর্যটন দিবস পালিত দশ বছর আমি মানুষের উন্নয়নে কাজ করেছি………………………..পীর মিসবাহ্ কোম্পানীগঞ্জে বিশ্ব পর্যটন দিবস পালিত কানাইঘাট থানা পুলিশের অভিযানে ৩৯ বস্তা ভারতীয় চিনি সহ এক চোরাকারবারী গ্রেফতার কোম্পানীগঞ্জে শ্রেষ্ঠ সহকারী শিক্ষক ও শিক্ষিকা কে পিএসসি ২০১৫ ব্যাচের সংবর্ধনা সুনামগঞ্জে মেরিট একাডেমি এন্ড হাইস্কুলের উন্নয়নে তিন লাখ টাকা প্রদানের ঘোষণা দিলেন মুকুট

এক কলার দাম ১১০০০০ টাকা!

  • আপডেটের সময় : বৃহস্পতিবার, ১৯ এপ্রিল, ২০১৮
  • ১২০৩ বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে

আজকের স্বদেশ ডেস্ক::

যুক্তরাজ্যের সুপারমার্কেট আসডা থেকে অনলাইনে মেয়ের জন্য একটি কলা কিনেছিলেন ববি গর্ডন। এরপর তিনি জানতে পারলেন, সেই কলার বিল হয়েছে ৯৩০ পাউন্ড, বাংলাদেশী মুদ্রায় যার দাম এক লাখ ১০ হাজার টাকা।

অথচ এই কলাটির দাম হওয়ার কথা ১১ পেন্স বা কমবেশি ১৩ টাকার মতো।

নটিংহ্যামের শেরউডের ববি গর্ডন বলছেন, প্রথমে বিলটি দেখে তিনি হতবাক হয়ে যান।

তার ক্রেডিট কার্ডে বিলটি চার্জ করা হলেও, কার্ড কোম্পানির প্রতারণা ঠেকানোর টিম সেটি আটকে দিয়ে তাকে ক্ষুদে বার্তা পাঠায়।

মিজ গর্ডন প্রথমে বিলটি দেখে অবাক হলেও, তিনি এবং তার স্বামী ভেবেছিলেন এটা হয়তো দোকানের ভুল হয়েছে। তারা বিষয়টি ধরতে পারবে।

কিন্তু যখন এজন্য আবার তার ক্রেডিট কার্ডে চার্জ করা হয়, তখন তার সত্যিই হতবাক হয়ে যান।

 

সুপারমার্কেট আসডা থেকে পাঠানো বিল

 

একে কম্পিউটারের ভুল জানিয়ে ক্ষমা চেয়েছে আসডা।

আসডার একজন মুখপাত্র বলছেন, যদিও আমাদের কলাগুলো চমৎকার। কিন্তু এটা ঠিক যে, তার দাম এতো নয়। এটি নিঃসন্দেহে কম্পিউটারের একটি ভুল।

তারা বলছেন, আমরা গর্ডনকে ধন্যবাদ জানাই, যে তিনি বিলটি যাচাই করে দেখেছেন। এরকম ভুল যাতে ভবিষ্যতে না ঘটে, আমরা সেই ব্যবস্থা নিচ্ছি।

গর্ডন বলছেন, এরপর আমি আমার সাত বছরের মেয়েকে বললাম, তোমার উচিত কলাটা খুব মজা করে খাওয়া, প্রতিটি কামড় ভালো করে খাওয়া।

 

অবিশ্বাস্য মনে হলেও সত্যি : ৫৮ ইলিশের দাম ২০ টাকা

নাসির উদ্দিন, ইন্দুরকানী (পিরোজপুর)

না, এটা সায়েস্তা খানের আমলের কোনো গল্প নয়। পিরোজপুরের ইন্দুরকানীর বিভিন্ন হাটবাজারে প্রতিদিনই দেখা যায় এ চিত্র। মঙ্গলবার ইন্দুরকানীর বালিপাড়ায় মাত্র ২০ টাকায় কেনা গেছে ১৫৩২টি পোনা মাছ এবং ৫৮টি ইলিশের বাচ্চা। প্রতি ভাগ ২০ টাকা দরে বিক্রি হয় পোনা, তাপসী ও ইলিশের বাচ্চা। এর ১ ভাগের মাছ গুনে পাওয়া গেছে এ সংখ্যা।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, উপজেলার কচা ও বলেশ্বর নদীর চর এলাকায় ও বড় বড় খালে প্রতিদিন গড়ে শতাধিক চরগড়া জাল পাতা হয়। এসব জালে ছোট মাছ ধরা পড়ে। নদীর চরে টানা জাল নামে আরো একটি বিশেষ জাল (বেড়) টেনে ছোট ছোট বাচ্চা ধরা হয়। আবার নদীর ভাঙ্গন এলাকায় যেখানে স্রোত বেশি পড়ে সেখানে বাধা জাল পাতা হয়। এসব জালে লাখ লাখ পোনা ও ইলিশের বাচ্চা ধরা পড়ে।

আর এসব মাছ বিভিন্ন হাট বাজারে কখনো ১০০ টাকা কেজি হিসাবে আবার কখনো ২০ টাকা ভাগ দিয়ে প্রকাশ্যে বিক্রি হচ্ছে। এ ছাড়াও এক শ্রেণীর লোক আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে ফাঁকি দিয়ে গ্রামে গ্রামে ফেরি করে এসব ছোট মাছ বিক্রি করে থাকে। মাঝে মাঝে দুই একটি অভিযানে এসব অবৈধ জাল আটক করে পুড়িয়ে ফেলা হলেও হাজারে হাজার জেলেকে নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হচ্ছে না।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক জেলে জানায়, উপজেলার কলারণ, চন্ডিপুর, বালিপাড়া, সাউথখালী, টগড়া, টেংরাখালী এবং লাহুরী এলাকায় প্রতিদিন দিনে ও রাতে অর্ধশত অবৈধ বাধাজাল পাতা হয়। এর প্রত্যেকটি বাধাজালে ৩ থেকে ৪ ঝুড়ি মাছের পোনা পাওয়া যায়।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ইন্দুরকানী উপজেরা মৎস্য কর্মকর্তা শোখ আসাদুজ্জামান জানান, “এসব নিয়ন্ত্রয়ণের জন্য আমি সরকার থেকে যে অভিযান খরচ পাই তা অতি সামান্য। তাতে পর্যাপ্ত অভিযান পরিচালনা করা যায় না। তারপরও আমি সপ্তাহে ১টা অভিযান পরিচালনা করি। এছাড়া কিছু কিছু দুর্গম এলাকা আছে যেখানে প্রশাসশনের লোকজনও যেতে ইতঃস্তত করে। সেসব এলাকায় সাধারণত বাধা জাল পাতা হয়। (১০ এপ্রিল ২০১৮ প্রকাশিত সংবাদ)

 

 

 

আজকের স্বদেশ/জুয়েল

পোস্টটি আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ধরনের আরো সংবাদ দেখুন
© All rights reserved © 2022 আজকের স্বদেশ
Design and developed By: Syl Service BD