1. abubakarpressjp@gmail.com : Md Abu bakar : Md Abubakar bakar
  2. sharuarpress@gmail.com : admin520 : Md Gulam sharuar
  3. : alamin328 :
  4. jewela471@gmail.com : Jewel Ahmed : Jewel Ahmed
  5. ajkershodesh@gmail.com : Mdg sharuar : Mdg sharuar
রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:৪৯ পূর্বাহ্ন
হেড লাইন
জগন্নাথপুরের কৃষক এনামুল হক এবারও ভূট্রা-ধনিয়া চাষে সফল কোম্পানীগঞ্জে প্রাণী সম্পদ সেবা সপ্তাহ ও প্রদর্শনী উদ্বোধন কানাইঘাটে ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী সাংবাদিক তাওহীদকে এলাকাবাসীর অকুন্ঠ সমর্থন সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার হাওর এলাকায় বোরোধান কর্তন উৎসব|| শিলাবৃষ্টি বজ্রপাত আতঙ্কে কৃষক কোম্পানীগঞ্জে শাহিন হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন সুনামগঞ্জে প্রতিপক্ষের দেওয়া আগুনে পুড়ে লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি সাধন থানায় অভিযোগ দায়ের কোম্পানীগঞ্জে বাবলুর রহস্যজনক মৃত্যু: তদন্তের দাবিতে প্রতিবাদ সভা সুনামগঞ্জের জনপ্রিয় শিল্পী পাগল হাসানসহ সড়ক দূর্ঘটনায় ২ নিহত, আহত ৩ কানাইঘাটে সর্বজন শ্রদ্ধেয় ইফজালুর রহমানের দাফন সম্পন্ন ॥ বিএনপি নেতৃবৃন্দের শোক বার্মিংহাম ওয়েষ্ট মিডল্যান্ড বিএনপি ও বার্মিংহাম সিটি বিএনপির ঈদ পূর্ণমিলনী অনুষ্ঠিত

জায়গা জবর দখলের ঘটনায় নবীগঞ্জের আলোচিত চেয়ারম্যান হারুন ও উস্তার মেম্বারের বিরোদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের

  • Update Time : বুধবার, ১১ এপ্রিল, ২০১৮
  • ৯৩৬ শেয়ার হয়েছে

বিশেষ প্রতিনিধি::

নবীগঞ্জ উপজেলার আউশকান্দি ইউনিয়নের বহুল আলোচিত সমালোচিত চেয়ারম্যান লন্ডন প্রবাসী মুহিবুর রহমান হারুন ও স্থানীয় ওয়ার্ড মেম্বার উস্তার মিয়া কর্তৃক মালিকানা জমির উপর দিয়ে জবর দখল করে আদালতের নিষেধ অমান্য করে রাস্তা নির্মান করায় ঐ দুই সমালোচিত ব্যাক্তির বিরোদ্ধে জমির মালিক বাদী হয়ে হবিগঞ্জ বিজ্ঞ আদালতে আরেকটি মামলা দায়ের করলেন।

 

এ ঘটনায় স্থানীয় এলাকায় সর্বত্র তুলপাড় সৃষ্টি হয়েছে। মামলার বাদী আউশকান্দি ইউনিয়নের বেতাপুর গ্রামের শাহ মুস্তাকিন আলী বিবাদীদের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবী করেন। মামলার এজাহারে উল্লেখ ও এলাকাবাসীর সূত্রে জানাযায়, নবীগঞ্জ উপজেলার আউশকান্দি ইউনিয়নের শাহপুর মৌজাধীন বেতাপুর আমুকোনা গ্রামের পশ্চিমে উলুকান্দি হাওরের সন্নিকটে একই এলাকার কতিপয় প্রভাবশালী কর্তৃক একটি অটো ব্রিকস্ ফিল্ড এর কাজ চলে আসছে।

 

ঐ ব্রিকস্ ফিল্ড কোম্পানীর লোকজনের সাথে গোপন চুক্তি করে আউশকান্দি ইউপির বির্তকিত চেয়ারম্যান মুহিবুর রহমান হারুন ও স্থানীয় ৯নং ওয়ার্ডের মেম্বার উস্তার মিয়া তাদের লোকজন নিয়ে সম্প্রতি জোর পূর্বক জমি অধিগ্রহন ছাড়াই ব্রিকস্ ফিল্ডের লোকজন সেজে রাস্তা নির্মানের পরিকল্পনা করেন।

 

এ ঘটনায় ঐ চেয়ারম্যান মেম্বারের নাম উল্লেখ করে গত ২৭ ফেব্রুয়ারী প্রতিপক্ষগণের বিরোদ্ধে স্থায়ী নিষেধাজ্ঞার দাবীতে অত্র আদালতে স্বত্ত মোকদ্দমা নং ২৬/২০১৮ দায়ের করিলে বিবাদী প্রতিপক্ষগণকে অস্থায়ী ভাবে বারণ করার জন্য বাদী প্রাথী পক্ষ বিগত ২৮/২/২০১৮ইংরেজী তারিখে অন্তবর্তীকালিন নিষেধাজ্ঞা জারি করিলে আসামীরা তাদের ইচ্ছাকৃত ভাবে আদালত অমান্য করিয়ে জমির মালিকদের ভূমির উপর দিয়ে এক্সেভেটর মিশিন ধারা নালিশী ভূমির উপর দিয়ে মাঠি ভরাটের পাক্কা কাজ শুরু করে।

 

 

 

 

বিজ্ঞ আদালতে অন্তবর্তীকালিন নিষেধাজ্ঞার আদেশের উল্লেখে ভূমির উপর দিয়ে মাঠি ভরাট ক্রমে নতুন কল্পে রাস্তা নির্মান কার্য হইতে বিরত থাকার জন্য বিবাদী প্রতিপক্ষকে অনুরুধ করিলে বিবাদী প্রতিপক্ষ হারুন চেয়ারম্যান, উস্তার মেম্বার চরম ভাবে ক্ষিপ্ত হয়ে আক্রমন করার চেষ্টা করে। এমন কি বিজ্ঞ আদালত ও আদেশের প্রতি বিভিন্নরূপ কটাক্ষ্য মন্তব্য করে তারা নালিশী ভূমির উপর দিয়ে নতুন কল্পে রাস্তা নির্মান কার্য হইতে নিবৃত্ত হইবে না মর্মে বাদীপক্ষকে বলেন।

 

প্রভাবশালীরা আরো বলে, আপনাদের কোর্টকে গিয়ে বলেন রাস্তা আটকাইতো! আমরা এই রাস্তা নির্মান করবই। এই ধরনের আদেশ অমান্য করলে আমাদের কিছুই হবেনা। পরিশেষে চেয়ারম্যান ও তাদের লোকজন ৩/৪দিন পূর্বে বিজ্ঞ আদালতের প্রতি বিভিন্ন কটাক্ষ্য মন্তব্য ও জমির মালিকদের লোকজনের প্রতি মারমূখি আচরন করলে দাঙ্গা হাঙ্গামা ও খুন খারাপির আশংকা দেখা দিলে জমির মালিক হাজী শাহ মুস্তাকিন আলী গত ৭/৪/২০১৮ইং তারিখে নবীগঞ্জ থানায় একটি ডিজি দায়ের করেন।

 

এরই প্রেক্ষিতে নবীগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে ঐ চেয়ারম্যান ও মেম্বারকে মৌখিক ভাবে নিষেধ করলে পুলিশ যাওয়া মাত্রই তারা জায়গা জবর দখল করে প্রভাব বিস্তার করে রাস্তা নির্মান করে কাজ শুরু করে। অজ্ঞাত কারণে সে সময় পুলিশ কোন ব্যবস্থা নেয়নি!

 

এ ঘটনায় জমির মালিক ও স্থানীয়দের মধ্যে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। এমন কি এলাকায় টানটান উত্তেজনাও বিরাজ করে। উক্ত ঘটনায় বিভিন্ন পত্র- পত্রিকায় ফলাও করে সংবাদ প্রকাশ হলে চেয়ারম্যান ও মেম্বারের বিভিন্ন মহলে দৌড় ঝাপ শুরু হয়। এবং জমির মালিক ও মামলার বাদীদেরকে বিভিন্ন ভাবে হুমকি ধামকি দিয়ে আসছেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

 

উল্লেখিত ঘটনায় গত ১০ এপ্রিল মঙ্গলবার সহকারী জজ আদালত নবীগঞ্জ হবিগঞ্জে বিবিধ (ভায়োলেশন) মোকদ্দমা নং ৪/২০১৮ইংরেজী দায়ের করলেন আউশকান্দি ইউনিয়নের মৃত হাজী শাহ মনোহর আলীর পুত্র হাজী শাহ মুস্তাকিন আলী। উক্ত মামলা দায়েরের প্রেক্ষিতে বিজ্ঞ আদালত বিবাদীদেরকে আগামী ২২.০৫.২০১৮ইংরেজী তারিখে কারণ দর্শানোর নির্দেশ দিয়েছেন।

 

 

আজকের স্বদেশ/জিএস/জুয়েল

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2024
Design and developed By: Syl Service BD